পাকিস্তানের বিপক্ষে তৃতীয় ম্যাচে এসে নারী বিশ্বকাপের ইতিহাসে নিজেদের প্রথম জয়ের দেখা পেল বাংলাদেশ। পাকিস্তানের বিপক্ষেও এটি প্রথম জয়। রোমাঞ্চ ছড়ানো এই ম্যাচে পাকিস্তানি মেয়েদের ৯ রানে হারিয়ে মাঠ ছাড়ে নিগার সুলতানার দল।

বাংলাদেশের দেওয়া ২৩৫ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ওপেনিংয়ে দুর্দান্ত খেলে পাকিস্তান। উদ্বোধনী জুটিতে ৯১ রানে তুলে বাংলাদেশকে চিন্তায় ফেলে দিয়েছিল নাহিদা খান ও সিদরা আমিন। ৬৭ বলে ৪৩ রান করে নাহিদা সাজঘরে ফিরলেও আমিন দলের হাল ধরেন অধিনায়ক বিসমাহ মারুফের সঙ্গে।

দ্বিতীয় উইকেটে দুজনে গড়েন ৬৪ রানের জুটি। ৪৮ বলে ৩১ রান করে অধিনায়ক বিদায় নিলে পাকিস্তান খেই হারায়। টপ অর্ডার ছাড়া পাকিস্তানের অন্য ব্যাটাররা মাথা তুলে দাঁড়াতে পারেননি বাংলাদেশের সামনে। ১৮৩ রানে পাকিস্তান তৃতীয় উইকেট হারানোর পর একে একে উইকেট তুলে নিতে থাকে বাংলাদেশ। 

শেষ পর্যন্ত ৯ রানে জিতে বিশ্বকাপে জয়ের খাতা খুললো নিগার সুলতানা জ্যোতির দল। বৃথা গেল পাক ওপেনার সিদ্রা আমিনের সেঞ্চুরি। এ নিয়ে বিশ্বকাপে টানা ১৮ ম্যাচে হার দেখলো পাকিস্তান।

এমন হারে হতাশ পাকিস্তানের অধিনায়ক বিসমাহ মারুফ। ম্যাচ শেষে তিনি বলেন, 'এই হার হজম করা খুব কঠিন। ম্যাচটিতে মিডল-অর্ডারে কিছু বাজে শটের মূল্য দিতে হলো। আমিন (সিদ্রা) খুব ভালো খেলেছে। তবে সে হতাশ কারণ সে ম্যাচটি শেষ করতে পারেনি।'

তিনি আরো বলেন, 'আমাদের এই লক্ষ্য তাড়া করা উচিত ছিল। কিন্তু শট নির্বাচন আমাদের হতাশ করেছে। ‍খুব নিকটে যাওয়া দুটি ম্যাচে আমরা জিততে পারতাম।'