বর্ণাঢ্য ক্যারিয়ারে দারুণ একটি মাইলফলক স্পর্শ করলেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। পঞ্চম বাংলাদেশি ক্রিকেটার হিসেবে দুইশ ওয়ানডে খেলার অনন্য কীর্তি গড়লেন টাইগার এই ব্যাটিং অলরাউন্ডার। 

দেশের হয়ে সবচেয়ে বেশি ওয়ানডে ম্যাচ খেলেছেন মুশফিকুর রহিম। ২০০৬ সালে অভিষেক হওয়া এই ব্যাটসম্যান খেলেছেন ২২৭ ওয়ানডে। মাশরাফি আন্তর্জাতিক ওয়ানডে খেলেছেন ২২০টি। বাংলাদেশের জার্সিতে খেলেছেন ২১৮টি। ২টি ম্যাচ খেলেছেন এশিয়া একাদশের হয়ে। এছাড়া তামিম ২১৮, সাকিব ২১৪ ম্যাচ খেলেছেন।

২০০৭ সালের ২৫ জুলাই কলম্বোর প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে মাহমুদউল্লাহর ওয়ানডে ক্রিকেটে অভিষেক হয়। ১০০ ওয়ানডে পূর্ণ হয় ৭ বছর পর, ভারতের বিপক্ষে মিরপুরে। আরও ৭ বছর পর হলো দুইশ।

১৪ বছরের ক্রিকেট ক্যারিয়ার মাহমুদউল্লাহর।  ১৯৯ ওয়ানডেতে ৪ হাজার ৪৬৯ রান আছে তার নামের পাশে। যা দেশের হয়ে চতুর্থ সর্বোচ্চ। এই ফরম্যাটে ৭৬ উইকেট নিয়ে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ উইকেট শিকারীদের তালিকার সাত নম্বরে অবস্থান করছেন এই ব্যাটিং অলরাউন্ডার।

বিশ্বকাপে সেঞ্চুরি হাঁকানো প্রথম বাংলাদেশি ব্যাটসম্যান রিয়াদই। ২০১৫ সালে অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ড বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তিন অঙ্কের ম্যাজিক ফিগারের দেখা পান তিনি। ২০১৭ সালের চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে নিউজিল্যান্ডকে হারানোর পথেও সেঞ্চুরি করেন ৩৫ বছর বয়সী এই ক্রিকেটার।

আজ বাংলাদেশ জিতলে প্রতিপক্ষের বিপক্ষে টানা ১৯তম জয়ের পাশাপাশি দলটিকে আরেকবার হোয়াইটওয়াশ করার কৃতিত্বও অর্জন করবে টাইগাররা।