সাউদাম্পটনের সামনে মঙ্গলবার রাতে প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচে লাল জার্সির দৈত্য হয়েই আর্বিভূত হয়েছিল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। ঘরের মাঠে পয়েন্ট টেবিলে ১২ নম্বরে থাকা দলটির জালে প্রিমিয়ার লিগের রেকর্ড ৯ গোল দিয়েছে ওলে গুনার সুলসারের দল। দুই ম্যাচ কম খেলে ম্যানসিটির সমান পয়েন্ট নিয়ে উঠেছে দুইয়ে।

নরওয়েজিয়ান কোচের দল ম্যানসিটি-লিভারপুলকে দিয়েছে একটা বার্তাও। চলতি মৌসুমে তার দল শিরোপার বড় দাবিদার জানিয়ে দিয়েছেন কথাটা। ম্যাচের ১৮ মিনিটে প্রথম গোলের মুখ খোলে রেড ডেভিলসরা। এরপর তাদের ওই গোল যাত্রা চলে ম্যাচের যোগ করা সময় পর্যন্ত।

দলের হয়ে প্রথম গোল করেন ২৩ বছর বয়সী ইংলিশ রাইট ব্যাক অ্যারন ওয়েন বিশাক্কা। এরপর ২৫ মিনিটে ব্যবধান ২-০ করেন ইংলিশ উইঙ্গার মার্কোস রাশফোর্ড। ১৪ মিনিট পরে আত্মঘাতী এক গোলে জাল আরও ভারি করে সাউদাম্পটন। প্রথমার্ধে আরও এক গোল দেয় সর্বশেষ ২০১৩ সালে শিরোপা জয়ী দলটি। এবার ব্যবধান বাড়ান 'বুড়ো' এডিনসন কাভানি।

প্রথমার্ধে সাউদাম্পটনের জালে এক হালি গোল দিয়ে উড়তে থাকা ম্যানইউ দ্বিতীয়ার্ধে আরও 'নির্মম' হয়ে ওঠে। পরের অর্ধে তারা প্রতিপক্ষের জালে দেয় আরও পাঁচ গোল। এবার গোল দেওয়া শুরু করেন অ্যান্তিনিও মার্শিয়াল। ৬৯ মিনিটে তিনি দলের পক্ষে পঞ্চম গোল করেন। ম্যাকটমিনির পরে দলের পক্ষে পেনাল্টি থেকে সপ্তম গোল করেন পর্তুগিজ মিডফিল্ডার ব্রুনো ফার্নান্দেজ।

এরপর শেষ মুহূর্তে মার্শিয়াল এবং ড্যানিয়েল জেমস গোল করে সাউদাম্পটনকে ৯-০ গোলে বিধ্বস্ত করেন। তৃতীয়বার প্রিমিয়ার লিগে প্রতিপক্ষেকে নয় গোল দেওয়ার রেকর্ড গড়েন। এর আগে ম্যানইউ ১৯৯৫ সালে ইপসউইচ টাউনকে ৯-০ গোলে বিধ্বস্ত করে। এরপর ২০১৯ সালে এই সাউদাম্পটনকে ৯-০ গোলে উড়িয়ে দেওয়ার রেকর্ড গড়ে লেস্টারসিটি।