'অনুশীলন ক্যাম্প হবে, ক্রিকেটাররা না এলে নেই'

প্রকাশ: ২২ অক্টোবর ২০১৯     আপডেট: ২২ অক্টোবর ২০১৯      

ক্রীড়া প্রতিবেদক

ক্রিকেটারদের ধর্মঘট নিয়ে বৈঠক করেন বিসিবির পরিচালকরা। ছবি: বাফুফে

বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা ১১ দফা দাবিতে ধর্মঘট ডেকেছেন। জাতীয় লিগের পারিশ্রমিক, ঘরোয়া লিগের সুযোগ-সুবিধা। প্রিমিয়ার লিগ, বিপিএল ভিন্ন নিয়মে হওয়ার দাবিতে তাদের এই ধর্মঘট। এছাড়া তাদের দাবিতে কোয়াবের সভাপতি-সেক্রেটারিকে পদত্যাগ করার কথা বলা হয়েছে। তাদের দাবি মানা না হলে কোন ক্রিকেটীয় কার্যক্রমে তারা অংশ নেবেন না তারা। ওদিকে আগামী ২৫ অক্টোবর থেকে বাংলাদেশ দলের ভারত সফরের জন্য অনুশীলন ক্যাম্প শুরু হওয়ার কথা আছে।

এই ধর্মঘটের কারণে অনুশীলন ক্যাম্প এবং ভারত সিরিজ অনিশ্চয়তার মুখে পড়ে গেছে। তবে মঙ্গলবার পরিচালকদের সঙ্গে বৈঠক শেষে বিসিবি সভাপতি পাপন বলেন, সময় মতোই ভারত সিরিজের অনুশীলন ক্যাম্প শুরু হবে। তারা অনুশীলন ক্যাম্পে অংশ নিলে নেবে, না নিলে নায়।

বিসিবি সভাপতি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, আমাদের কোচরা চলে আসবেন। ড্যানিয়েল ভেট্টরি আসবেন। অন্যরাও চলে আসবেন। আন্দোলনের প্রভাব যেন অনুশীলনের ওপর না পড়ে। তিনি বিস্ময় প্রকাশ করে বলেন, টাকার জন্য ক্রিকেটাররা খেলা বন্ধ করে দেবে। বাংলাদেশের ক্রিকেট নিয়ে ষড়যন্ত্র হচ্ছে বলেও উল্লেখ করেন বোর্ড কর্তা। তবে সেই ষড়যন্ত্রের কথা দু'একজনের বেশি কেউ জানে বলে মন্তব্য করেন তিনি। যারাই ষড়যন্ত্রের অংশ হোক না কেন, তাদের ব্যাপারে দ্রুতই জানা যাবে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

টেস্ট মর্যাদা পাওয়ার পর বাংলাদেশ ভারতে কোন পূণাঙ্গ টেস্ট সিরিজ খেলেনি। এবার বাংলাদেশ প্রথম ভারতে সিরিজ খেলতে যাচ্ছে। ইডেন গার্ডেনে বাংলাদেশ টেস্ট ম্যাচ খেলবে। এ নিয়ে পাপন বলেন, অনেকে অনুরোধ করেছেন ভারতে একটি সিরিজ আয়োজন করতে। টেস্ট মর্যাদা পাওয়ার পর আমরা ভারতে সিরিজ খেলিনি। মধ্যে এক টেস্টের সিরিজ খেলেছি ভারত। এবার সিরিজ আয়োজন হচ্ছে। আর এখনই ক্রিকেটাররা ধর্মঘট করছে। যাতে ভারত সিরিজ না হলে আইসিসির প্রতিক্রিয়া শুনতে হয়।

বাংলাদেশ ক্রিকেটারদের এই ধর্মঘটের বিষয়টি ভারতসহ এশিয়া এবং বিশ্ব মিডিয়ায় জায়গা পেয়েছে। এ নিয়ে তিনি বলেন, ক্রিকেটাররা দেশের  বাইরে বোঝাতে চায়ছে যে, তাদের টাকা দেওয়া হয় না। তারা কম টাকা পায়। আপনারা জানেন, একজন ক্রিকেটারের আয় কত। কত অর্থ তাদের পেছনে খরচ করা হয়। তিনি বলেন, তারা একটি জায়গায় সফল হয়েছে। সেটা হলো ক্রিকেটের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করতে পেরেছে।