অনূর্ধ্ব-১৬ দলের পাকিস্তান সফর

পাকিস্তান যাওয়ার সবুজ সংকেত

প্রকাশ: ২১ অক্টোবর ২০১৯     আপডেট: ২১ অক্টোবর ২০১৯      

ক্রীড়া প্রতিবেদক

ছবি: ফাইল

বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৬ দলের ক্রিকেটাররা কিটস গুছিয়ে রেখেছেন। খেলোয়াড়দের থাকার ব্যবস্থা করা হয়েছে মিরপুর জাতীয় ক্রীড়া পল্লিতে। সবার পাসপোর্ট এবং বিমানের টিকিটও বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে ম্যানেজার হাসিবুল হোসেন শান্তকে। এককথায় পাকিস্তানে যাওয়ার সব প্রস্তুতি নেওয়া হয়ে গেছে। সোমবার সন্ধ্যা ৭টায় কাতার এয়ারের বিমানে ওঠার অপেক্ষায় সবাই। সবকিছু ঠিক থাকলে দোহা হয়ে মঙ্গলবার ভোরে লাহোরে গিয়ে পৌঁছাবে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৬ দলটি।

বিসিবির সূত্রে জানা গেছে, দেশটিতে খেলতে যাওয়ার ব্যাপারে পাকিস্তান সফরে থাকা রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তা পর্যবেক্ষকদের কাছ থেকে সবুজ সংকেত পাওয়া গেছে। সোমবার প্রতিনিধি দলের কাছ থেকে লিখিত রিপোর্ট পাওয়ার পরই সংবাদ বিজ্ঞপ্তি দিয়ে দল ঘোষণা করবে বিসিবি।

পাকিস্তান অনূর্ধ্ব-১৬ দলের বিপক্ষে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৬ দলের খেলা। রাওয়ালপিন্ডিতে দুটি তিন দিনের ও তিনটি একদিনের ম্যাচ খেলবে দুই দল। রাওয়ালপিন্ডির খান রিসার্চ ল্যাবরেটরি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে হবে সব ম্যাচ। তিন দিনের ম্যাচ দিয়ে সিরিজ শুরু। ২৫ থেকে ২৭ অক্টোবর প্রথম ম্যাচ। ৩০ অক্টোবর শুরু হয়ে ১ নভেম্বর হবে তিন দিনের দ্বিতীয় ম্যাচটি। ৪, ৬ ও ৮ নভেম্বর হবে ওয়ানডে তিনটি।

ছেলেদের দলের একদিন পরই পাকিস্তানের উদ্দেশে রওনা হবে জাতীয় নারী ক্রিকেট দল। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তারাও যাবে কাতার এয়ারওয়েজের একটি বিমানে। সালমা আহমেদদের খেলা অবশ্য লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে। দ্বিপক্ষীয় সিরিজে পাকিস্তান জাতীয় নারী দলের বিপক্ষে তিনটি ওয়ানডে এবং দুটি টি-২০ খেলবেন বাংলাদেশের মেয়েরা।

২৬, ২৮ ও ৩০ অক্টোবর হবে ওয়ানডে ম্যাচ তিনটি। টি-২০ ম্যাচ ২ ও ৪ নভেম্বর। ছেলেদের পরে গিয়ে মেয়েরা ফিরবেনও আগে। সফরে ক্রিকেটারদের নিরাপত্তা ব্যবস্থা পর্যবেক্ষণ করতেই রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তা পর্যবেক্ষক দল পাকিস্তানে। আজ দেশে ফিরে রিপোর্ট দেবে চার সদস্যের নিরাপত্তা পরিদর্শক দল।