রংপুরে চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে তরুণীকে ধর্ষণের ঘটনার মামলায় তোজাম্মেল হোসেন নামে এক আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। 

বুধবার দুপুরে রংপুরের নারী-শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক এম আলী আহমেদ এ রায় ঘোষণা করেন। তোজাম্মেল পীরগঞ্জের পাঁচগাছি ইউনিয়নের তোফাজ্জল ফকিরের ছেলে।

আদালত ও মামলা সূত্রে জানা যায়, ২০২০ সালের ২৯ জুন পীরগঞ্জ উপজেলার জাহাঙ্গীরাবাদ এলাকার এক তরুণীকে একই উপজেলার পাঁচগাছি ইউনিয়নের তোজাম্মেল চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে ঢাকা ও নীলফামারীর জলঢাকায় নিয়ে ধর্ষণ করে। পরে এ ঘটনায় তরুণীর বাবা বাদী হয়ে পীরগঞ্জ থানায় নারী-শিশু নির্যাতন দমন আইনে তোজাম্মেল ও  সিএনজিচালিত অটোরিকশাচালক জামিউলের নামে মামলা করেন। মামলার সাক্ষ্য প্রমাণ শেষে বুধবার তোজ্জাম্মেল হোসেনকে দুটি ধারায় পৃথক পৃথক ভাবে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড এবং ১০ হাজার টাকা জরিমানার আদেশ দেওয়া হয়। অনাদায়ে আরও দুই মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেওয়া হয়। মামলার অপর আসামি জামিউলকে খালাস দেন আদালত।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী তজিবুর রহমান লাইজু বলেন, রায়ে বাদী পক্ষ সন্তুষ্ট। 

আসামি পক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট জাকিয়া আক্তার বলেন, আসামি ন্যায়বিচার পায়নি। পরিবারের সঙ্গে আলোচনা করে উচ্চ আদালতে যাব।