বগুড়ার শেরপুরে সুদের টাকা না পেয়ে আকাব্বর হোসেন (৪২) নামে এক ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। বুধবার দুপুরে উপজেলার গাড়ীদহ ইউনিয়নের কাফুড়া পূর্বপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত আকাব্বর কাফুড়া পূর্বপাড়া গ্রামের লবির উদ্দিনের ছেলে। তিনি মুরগীর ব্যবসা করতেন।

নিহতের স্বজনরা জানায়, ব্যবসা বাড়ানোর জন্য আকাব্বর হোসেন সাতমাস আগে একই গ্রামের আজিবর হোসেন ও রানু বেগমের কাছ থেকে ৫০ হাজার টাকা সুদের ওপর ঋণ নেন। প্রতিমাসে চার হাজার করে সুদের টাকা পরিশোধ করে আসছিলেন তিনি। কিন্তু গত জুন মাসে ব্যবসা মন্দার কারণে সুদের টাকা দিতে পারেননি আকাব্বর।

তারা জানান, গত মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে বকেয়া সুদের টাকা নিতে আজিবর ও রানু বেগম বাড়িতে আসেন। এরপর আকাব্বরকে ডেকে পাশের মজনুর বাড়িতে নিয়ে যান তারা। সেখানে টাকা পরিশোধ করার জন্য চাপ দিলে কথা কাটাকাটি শুরু হয়। একপর্যায়ে আকাব্বর হোসেনকে পিটিয়ে পালিয়ে যান তারা। গুরুতর অবস্থায় উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক আকাব্বর হোসেনকে মৃত ঘোষণা করেন।

এদিকে ঘটনার পর থেকেই অভিযুক্ত আজিবর হোসেন ও রানু বেগম পলাতক রয়েছেন।

জানতে চাইলে শেরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শহিদুল ইসলাম বলেন, খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়। ময়নাতেদন্তের জন্য মরদেহ উদ্ধার করে শজিমেক হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

তবে এ বিষয়ে থানায় লিখিত কোনো অভিযোগ আসেনি জানিয়ে তিনি বলেন, অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।