নওগাঁর সাপাহার সীমান্তে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) গুলিতে রমজান আলী (৩২) নামে এক বাংলাদেশি যুবক নিহত হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

মঙ্গলবার সকালে সাপাহার উপজেলার পাতাড়ী  ইউনিয়নের পাতাড়ী সীমান্তের নদী থেকে তার মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। রমজান আলী উপজেলার মধ্য পাতাড়ী গ্রামের জোয়ান আলীর ছেলে।

স্থানীয়রা জানায়, গত শনিবার রাতে সাত থেকে আটজনের একটি দল চোরাই পথে গরু আনতে ভারতে প্রবেশ করে। এসময় বিএসএফ সদস্যরা তাদের ধাওয়া করলে অন্যরা পালিয়ে আসতে সক্ষম হলেও রমজানের ওপর বিএসএফের গুলি লাগে। এরমধ্যেই সোমবার সকালে তার মরদেহ নদীতে ভাসতে দেখে তারা।

সাপাহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আল মাহমুদ জানান, রমজানের পরিবারের সদস্যরা তার মরদেহ নদীতে ভাসতে দেখে নদী থেকেন উদ্ধার করে ফেলেন। পরে থানায় খবর দিলে সুরতহালের পর মরদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য নওগাঁ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়।

নওগাঁ ১৬ বিজিবির অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল আসাদুজ্জামান বলেন, মরদেহটি বাংলাদেশের ভেতরে পাওয়া গেছে। কী কারণে বা কীভাবে তার মৃত্যু হয়েছে, এখনই নিশ্চিত করে বলা সম্ভব হচ্ছে না।