কুয়েতে ক্যাম্পে আরেক বাংলাদেশির মৃত্যু, বিক্ষোভ

প্রকাশ: ০৪ মে ২০২০   

সমকাল প্রতিবেদক

দুই সপ্তাহেরও বেশি সময় ধরে ক্যাম্পে অবস্থান করছেন কুয়েতে সাধারণ ক্ষমা পেয়ে দেশে ফেরার অপেক্ষায় থাকা বাংলাদেশিরা     -সংগৃহীত ছবি

দুই সপ্তাহেরও বেশি সময় ধরে ক্যাম্পে অবস্থান করছেন কুয়েতে সাধারণ ক্ষমা পেয়ে দেশে ফেরার অপেক্ষায় থাকা বাংলাদেশিরা -সংগৃহীত ছবি

দেশে ফেরার অপেক্ষায় কুয়েতের ক্যাম্পে থাকা আরও এক বাংলাদেশি মাারা গেছেন। মৃত আমরান (৪৩) চাঁদপুর জেলার হাজীগঞ্জ উপজেলার পূর্ব কাশিরগঞ্জ গ্রামের জুনাব আলীর ছেলে। এর আগে ২ এপ্রিল কুমিল্লার রবিউল ইসলাম নামের আরেক বাংলাদেশি আবদালিয়া ক্যাম্পে মৃত্যুবরণ করেন। 

ব্র‌্যাকের অ‌ভিবাসন কর্মসূ‌চির প্রধান শরিফুল হ‌াসান এ তথ‌্য জা‌নিয়েছেন।

অন‌্যদিকে দেশে ফেরার দাবিতে বিক্ষোভ কর‌ছেন ক‌্যাম্পে থাকা বাংলাদে‌শিরা। তাদের ওপর পুলিশ টিয়ারসেল নিক্ষেপ করেছে বলে খবর পাওয়া গেছে। 

গত ১ থেকে ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত অবৈধ অভিবাসীদের কুয়েত ছাড়ার জন্য সময়সীমা নির্ধারণ করে সাধারণ ক্ষমা ঘোষণা করে দেশ‌টির সরকার। প্রায় সাড়ে ৪ হাজার বাংলাদেশি সাধারণ ক্ষমার আবেদন করেছেন। তাদের বাংলাদেশে ফেরত পাঠাতে রাজধানী কুয়েত সিটির বাইরে চারটি ক্যাম্পে রাখা হয়েছে।

বাংলাদেশিদের অভিযোগ, ক্যাম্পে তারা মানবেতন জীবনযাপন করছেন। দুই সপ্তাহরও বেশি সময় ধরে ক্যাম্পে থাকার পরেও কবে তারা দেশে ফিরবেন তা অনিশ্চিত। কেউ তাদের খোঁজখবরও নিচ্ছেন না। ফলে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে  তারা তাদের ক্ষোভের কথা জানানোর পাশাপাশি ঢাকায় সাংবাদিকদের কাছেও নানা ভিডিও পাঠাচ্ছেন। 

ক‌্যাম্পে থাকা বাংলাদেশিরা জানিয়েছেন, দেশে ফেরার দাবিতে গতরাতে কুয়েতের ছেব‌দি ক্যাম্পে বিক্ষোভ করা হয়।