নিউইয়র্কে 'বাংলাদেশি ইমিগ্র্যান্ট ডে' বুধবার

প্রকাশ: ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯      

অনলাইন ডেস্ক

আমেরিকার নিউইয়র্ক স্টেট ২৫ সেপ্টেম্বর 'বাংলাদেশি ইমিগ্র্যান্ট ডে' হিসেবে প্রস্তাবনা পাশ করার পর এবারই প্রথম দিনটি আনুষ্ঠানিকভাবে পালন করতে যাচ্ছে এনআরবি ওয়াল্ডওয়াইড ইঙ্ক।

এ উপলক্ষে নিউইয়র্ক স্টেট সিনেট ও অ্যাসেম্বলি সাইটেশন হস্তান্তর করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ সরকারের পররাষ্ট্র মন্ত্রী ড. আব্দুল মোমেনের হাতে।

নিউইয়র্ক স্টেট সিনেট ও মুক্তধারা ফাউন্ডেশনকে ধন্যবাদ জানিয়ে আগামী ২৭ সেপ্টেম্বর থেকে ২৯ সেপ্টেম্বর তিনদিনব্যাপী বাংলাদেশি ইমিগ্রান্ট ডে ও বাণিজ্য মেলার আয়োজন করা হয়েছে নিউইয়র্কের জ্যাকসন হাইটসের পিএস ৬৯ মিলনায়তনে।

বাণিজ্য মেলা উদ্বোধন করবেন বাণিজ্য মন্ত্রী টিপু মুন্সী। এছাড়া অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে এফবিসিসিআইয়ের সভাপতি শেখ ফাহিম এবং গ্রেটার নিউইয়র্ক চেম্বার অব কমার্সের সিইও মার্ক জ্যাফি উপস্থিত থাকবেন।

১৯৭৪ সালে ২৫ সেপ্টেম্বর জাতিসংঘে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাংলা ভাষায় ভাষণ দিয়েছিলেন। এজন্য এ দিনটাকে বাংলাদেশি ইমিগ্র্যান্ট ডে হিসেবে ঘোষণার দাবি তোলা হয় বাংলাদেশীদের পক্ষ থেকে।

নিউইয়র্ক স্টেট সিনেট এ দাবিটি প্রস্তাবনা আকারে পাশ করে। বাংলাদেশি ইমিগ্র্যান্ড ডে পালন উপলক্ষে বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাণী দিয়েছেন।

প্রেসিডেন্ট আব্দুল হামিদ বাণীতে নিউইয়র্ক স্টেট এবং মুক্তধারা ফাউন্ডেশনকে অভিনন্দন জানিয়ে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জাতিসংঘে প্রদত্ত বাংলা ভাষণদানের কথা স্মরণ করে তার দূরদর্শিতার কথা তুলে ধরেন।

প্রধানমন্ত্রী তার বাণীতে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক বাংলা ভাষণের তাৎপর্য এবং দিনটিকে অভিবাসী দিবস ঘোষণা করায় নিউইয়র্ক স্টেটকে ধন্যবাদ জানান। এই দিবসটি ঘোষণা করায় অভিবাসী বাংলাদেশীদের প্রশংসাও করেন তিনি।

'বঙ্গবন্ধুর দূরদর্শিতা ও বাংলাদেশি ইমিগ্র্যান্ট ডে' শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠানে মূল বক্তব্য রাখবেন সাবেক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

গত বছরের মত এবছরও এনআরবি ওয়ার্ল্ড ওয়াইড তিনদিনব্যাপী 'বাংলাদেশ বাণিজ্য মেলা'র আয়োজন করেছে। এই মেলায় বাংলাদেশের বিভিন্ন পণ্যসমাগ্রীর স্টল ছাড়াও বঙ্গবন্ধুর লেখা ও তার ওপর লিখিত শ্রেষ্ঠ গ্রন্থগুলোর প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হবে।

সাংস্কৃতিক পর্বে অংশগ্রহণ করবেন স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের প্রখ্যাত শিল্পী রফিকুল আলম, মাহফুজ আহমেদ, মীর সাব্বির, তনিমা হাদী, শাহ মাহবুব, মাইশা, ঋত্বিকা ব্যানার্জী, দেবযানী দেবনাথ বর্ষা ও উদীপ্ত চৌধুরী।

২৭ সেপ্টেম্বর শুক্রবার সন্ধ্যা ৭টা থেকে রাত ১১টা। ২৮ ও ২৯ সেপ্টেম্বর সকাল ১১টা থেকে রাত ১১টা পর্যন্ত বাণিজ্যমেলা সেমিনার ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান থাকবে। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি