কর্মী ছাঁটাই করেছে দারাজ

প্রকাশ: ০৮ ফেব্রুয়ারি ২৩ । ০০:০০ | আপডেট: ০৮ ফেব্রুয়ারি ২৩ । ১২:৪৭ | প্রিন্ট সংস্করণ

প্রযুক্তি প্রতিদিন প্রতিবেদক

বৈশ্বিক মন্দায় অন্তত ১০০ কর্মী ছাঁটাই করেছে দারাজ বাংলাদেশ। মূলত বৈশ্বিক মন্দায় ব্যয় সংকোচনে প্রযুক্তি কোম্পানিগুলোতে কর্মী ছাঁটাই চলছে। এরই ধারাবাহিকতায় ভারতীয় উপমহাদেশে কর্মী ছাঁটাই করেছে দারাজ। 

আলিবাবার মালিকানাধীন ই-কমার্স প্ল্যাটফর্ম দারাজ গ্রুপ বলছে, 'বর্তমান বাজার বাস্তবতা'র কারণে ভারতীয় উপমহাদেশে কর্মীসংখ্যা ১১ শতাংশ কমিয়েছে তারা। প্ল্যাটফর্মটির বৈশ্বিক প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা বুজার্কি মিকেলসেন রয়টার্সকে বলেন, এরই মধ্যে ৩০০ কর্মীকে চাকরি থেকে অব্যাহতি দিয়ে গত সোমবার চিঠি দেওয়া হয়েছে। উপমহাদেশে দারাজের তিন হাজার কর্মী রয়েছে। রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ, ক্রমবর্ধমান মুদ্রাস্ম্ফীতি- সর্বোপরি আর্থিক মন্দায় কর্মী ছাঁটাইয়ে যেতে বাধ্য হয়েছে কোম্পানিটি। বর্তমানে ভারতীয় উপমহাদেশে দারাজের বাংলাদেশ, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা ও নেপালে কার্যক্রম রয়েছে। তবে বাংলাদেশ ও পাকিস্তানে প্ল্যাটফর্মটির কর্মীসংখ্যা সবচেয়ে বেশি।

মিকেলসন রয়টার্সকে বলেছেন, বাংলাদেশ ও পাকিস্তান থেকে ১০০ জন করে ২০০ কর্মী ছাঁটাই করা হবে। তবে দারাজ বাংলাদেশ সূত্র সমকালকে ছাঁটাইয়ের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেছে, দারাজ বাংলাদেশে অচিরেই নতুন বিনিয়োগ আসছে। ব্যবসায়ের স্বার্থে 'অপ্রয়োজনীয়' খাত বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে। এ জন্য ৫ শতাংশের মতো কর্মী ছাঁটাই হয়েছে, যা সংখ্যায় ৫০ জনের মতো। দারাজ পাকিস্তানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এহসান সায়ার রয়টার্সকে বলেছেন, পাকিস্তানে তাঁদের ১ হাজার ৩০০ কর্মী ছিল, যার মধ্যে ১১ শতাংশ ছাঁটাই করা হয়েছে। রকেট ইন্টারনেট কোম্পানির উদ্যোগে ২০১৫ সালে দারাজ বাংলাদেশে কার্যক্রম শুরু করে। ২০১৮ সালে চীনা ই-কমার্স প্ল্যাটফর্ম আলিবাবা দারাজ গ্রুপকে কিনে নেয়।

© সমকাল ২০০৫ - ২০২৩

সম্পাদক : মোজাম্মেল হোসেন । প্রকাশক : আবুল কালাম আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৭১৪০৮০৩৭৮ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com