মানসিক চাপ মুক্তিতে ধ্যান

বিশ্ব মেডিটেশন দিবস আজ

প্রকাশ: ২১ মে ২২ । ০০:০০ | আপডেট: ২১ মে ২২ । ১১:৩৩ | প্রিন্ট সংস্করণ

আবু সালেহ রনি

বান্দরবানের লামায় সুউচ্চ পাহাড়ে কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশনে চলছে মেডিটেশন - ফাইল ফটো

কর্মব্যস্ত নাগরিক জীবন নানা সমস্যায় জর্জরিত। প্রতিনিয়তই পড়তে হয় রাগ, ক্ষোভ, দুঃখ, হতাশা কিংবা নানা ধরনের মানসিক চাপের মুখে। বিশেষজ্ঞরা মনে করেন, এমন পরিস্থিতিতে ধ্যান বা মেডিটেশন দিতে পারে মনের প্রশান্তি। মেডিটেশন প্রাচীন ভারতীয় যোগচর্চারও অন্যতম একটি অংশ ছিল। এটি চর্চায় নেতিবাচকতা থেকে ইতিবাচকতায় বদলে যায় দৃষ্টিভঙ্গি। নিয়মিত মেডিটেশন করলে মস্তিস্কের শক্তি বাড়ে। মানুষ পেতে পারে প্রশান্তি সুস্বাস্থ্য ও সাফল্য।

আজ ২১ মে বিশ্ব মেডিটেশন দিবস। বিশ্বজুড়ে প্রায় ৫০ কোটি মানুষ নিয়মিত ধ্যান বা মেডিটেশন করেন। গত কয়েক বছর ধরে বাংলাদেশসহ পৃথিবীজুড়ে দিবসটি পালিত হয়ে আসছে। বিভিন্ন শ্রেণি-পেশা ও বয়সের মানুষ এত সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণ করেছেন।

বাংলাদেশে মেডিটেশন দিবস পালনের অন্যতম উদ্যোক্তা কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশন। সংগঠনটির দুই শতাধিক ইউনিটে আজ হাজারো মানুষ সম্মিলিত মেডিটেশনে অংশ নেবেন। এবারের মেডিটেশন দিবসের প্রতিপাদ্য, 'ভালো মানুষ, ভালো দেশ, স্বর্গভূমি বাংলাদেশ'।

ঢাকার শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজের মনোরোগবিদ্যা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক আহসান উদ্দিন আহমেদ বলেন, 'অ্যাংজাইটি, ডিপ্রেশন, ইনসমনিয়া, মাইগ্রেনের মতো মানসিক চাপজনিত মনোদৈহিক রোগগুলো প্রাথমিক পর্যায়ে থাকলে মেডিটেশনের মাধ্যমে সারিয়ে তোলা সম্ভব। তবে জটিল পর্যায়ে পৌঁছে গেলে চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী চিকিৎসা গ্রহণ করতে হবে। পাশাপাশি ধ্যানের চর্চা চিকিৎসার কার্যকারিতা বাড়িয়ে দিতে পারে।'

বছর পাঁচেক আগে উইল উইলিয়ামস নামের এক ব্রিটিশ মেডিটেশন প্রশিক্ষক প্রথম এ দিবসটি পালনের উদ্যোগ নেন। উইল উইলিয়ামস অনিন্দ্রার রোগী ছিলেন। মেডিটেশনের মাধ্যমে নিরাময়ের পর তিনি এ সম্পর্কে আরও উৎসাহী হয়ে ওঠেন। গভীর ধারণা লাভের জন্য তিনি ভারতে এসে সেখানকার দু'জন গুরুর সান্নিধ্য লাভ করেন। সেই সঙ্গে চীন, মিশরীয় ও অ্যামাজন অঞ্চলের ধ্যান সম্পর্কে পাঠ নেন। এক পর্যায়ে 'বিজা' মেডিটেশন নামে একটি ধ্যান পদ্ধতির প্রবর্তন করেন। যার মূল সুর উৎসারিত হয়েছে প্রাচ্যধারার ধ্যান পদ্ধতি থেকে।

২০১৮ সালের এক জরিপে দেখা যায়, যুক্তরাষ্ট্রের শতকরা ৫২ ভাগ প্রতিষ্ঠানই তাদের কর্মীদের মেডিটেশনের ব্যবস্থা করে দিয়েছে। কারণ, তারা দেখছে, মেডিটেশন করা কর্মীর উৎপাদন ক্ষমতা মেডিটেশন না করা কর্মীর চেয়ে শতভাগ বেশি। বাংলাদেশের করপোরেট প্রতিষ্ঠানগুলোও সেদিকে ঝুঁকছে।

ইউনাইটেড হসপিটালের মনোরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. জহির উদ্দিন আহমেদ বলেন, 'মানসিক চাপ নিয়ে যখন একজন মানুষ ধ্যানমগ্ন হন বা মেডিটেশন করেন, তাঁর চাপের মাত্রা কমে যায় শতকরা ৬০ ভাগ। গবেষণার তথ্য, হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তির হার ৮৭ ভাগ কমেছে, যখন তাঁরা মেডিটেশন করেছেন। শতকরা ৯১ ভাগ মানুষই মেডিটেশন করে ঘুমের ওষুধ খাওয়া বাদ দিয়েছেন। কোনো ওষুধ বা প্রচলিত চিকিৎসা পদ্ধতিতে এমন সাফল্য দেখা যায়নি।'

কর্মসূচি :কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে আজ সকাল সাড়ে ৬টায় সারাদেশে এবং দেশের বাইরে ইউরোপ, উত্তর আমেরিকা, ফ্রান্স, অস্ট্রেলিয়া, মালয়েশিয়াসহ বিভিন্ন শাখা ও ভার্চুয়াল সেলে প্রবাসী বাংলাদেশিরা ধ্যানমগ্ন হবেন। জাতীয় প্রেস ক্লাব চত্বরে আয়োজন করা হয়েছে মেডিটেশন দিবসের মূল আয়োজন। এ ছাড়াও আয়োজন করা হয়েছে মাসব্যাপী শিশু-কিশোরসহ সব বয়সের মানুষের জন্য রচনা, চিত্রাঙ্কনসহ নানা প্রতিযোগিতা।

© সমকাল ২০০৫ - ২০২২

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মোজাম্মেল হোসেন । প্রকাশক : আবুল কালাম আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৭১৪০৮০৩৭৮ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com