'মেটা নীতিমালা' নামে ফেসবুকে গুজব

২৮ নভেম্বর ২১ । ০০:০০

ফেসবুকের মূল প্রতিষ্ঠান মেটা নতুন নীতিমালার আওতায় ব্যবহারকারীদের তথ্য নিজস্ব কাজে ব্যবহার করবে বলে গুজব ছড়িয়ে পড়েছে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমটিতে শেয়ার করা পোস্টে বলা হচ্ছে, 'নতুন নীতিমালা অনুসারে ফেসবুকের প্রধান প্রতিষ্ঠান মেটা ব্যবহারকারীর যে কোনো ধরনের তথ্য অনায়াসে ব্যবহার করতে পারবে। এমনকি তারা ফেসবুকভিত্তিক অ্যাপ মেসেঞ্জারের মুছে ফেলা বার্তাও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করতে পারবে।' এ ধরনের পোস্টের পুরো তথ্যই সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন এবং গুজব বলে জানাচ্ছে আন্তর্জাতিক বার্তা সংস্থা এএফপি। ফেসবুক মুখপাত্রের বরাত দিয়ে আন্তর্জাতিক বার্তা সংস্থা এএফপি বলছে, ছড়ানো খবরটি মিথ্যা, এ ধরনের তথ্যের কোনো ভিত্তি নেই। গত বছরও ফেসবুকে এমন একটি গুজব ছড়িয়েছিল। এদিকে বাংলাদেশের ব্যবহারকারীরাও ভিত্তিহীন এ সংবাদ ব্যাপক হারে শেয়ার করছে। বাংলাদেশি ফেসবুক ব্যবহারকারীরা ভিত্তিহীন তথ্যের একটি স্ট্ক্রিনশট শেয়ার করছে যাতে লেখা রয়েছে, 'আগামীকাল থেকে নতুন ফেসবুক বা মেটা নিনডম শুরু হবে, যেখানে তারা আপনার ছবি ব্যবহার করতে পারবে। ভুলে যাবেন না, আজ শেষ দিন!' পোস্টে আরও বলা হয়, 'ফেসবুক বা মেটাকে তাদের ওয়েবসাইটে পোস্ট করা আমার তথ্য অন্য কোথাও শেয়ার করার অনুমতি দিচ্ছি না।' অন্য ব্যবহারকারীদের এ পোস্ট শেয়ার করার উৎসাহ দিয়ে বলা হচ্ছে, এ স্ট্ক্রিনশট কপি-পেস্ট করে ফেসবুকে আগাম জানিয়ে রাখলে তারা আর ব্যক্তিগত তথ্য ব্যবহার করতে পারবে না। বাংলাদেশ ছাড়াও যুক্তরাষ্ট্র, নিউজিল্যান্ড, ইথিওপিয়া, সিঙ্গাপুর, থাইল্যান্ডসহ বেশকিছু দেশে এ ধরনের বার্তা ছড়িয়ে পড়েছে। থাইল্যান্ড ও লাওসে ফেসবুকের যোগাযোগ ব্যবস্থাপক মানাশুয়েন কোভাপিরাত এএফপি ফ্যাক্ট চেককে বলেছেন, 'আমি নিশ্চিত করছি, ব্যবহারকারীদের তথ্য নেওয়া হবে বলে যে বার্তা ফেসবুকে ছড়ানো হয়েছে তা পুরোপুরি ভিত্তিহীন। মূলত ফেসবুকে যোগাযোগ আরও আকর্ষণীয় করতে 'মেটাভার্স' নামে কল্পজগৎ তৈরি করতে যাচ্ছেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমটির প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গ। এজন্য ইতোমধ্যে ১০ হাজার নতুন কর্মী নিয়োগের ঘোষণা দিয়েছেন। এক শ্রেণির ব্যবহারকারী ধারণা করে নিয়েছেন, মেটাভার্স তৈরিতে ব্যবহারকারীদের ব্যক্তিগত তথ্য ইচ্ছেমতো ব্যবহার করবে ফেসবুক। তবে এ ধরনের দাবির কোনো ভিত্তি নেই বলে নিশ্চিত করেছে ফেসবুক।

প্রযুক্তি প্রতিদিন ডেস্ক

© সমকাল ২০০৫ - ২০২২

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মোজাম্মেল হোসেন । প্রকাশক : আবুল কালাম আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com