'বাসুদা'র জন্যই আজকের ফেরদৌস হয়ে ওঠা'

০৭ জুন ২০২০

ফেরদৌস আহমেদ। অভিনেতা। এখন পর্যন্ত পাঁচবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারজয়ী এই নায়ক ১৯৭৬ সালের এই দিনে জন্মগ্রহণ করেছিলেন। জন্মদিন ও অন্যান্য প্রসঙ্গে কথা হলো তার সঙ্গে-

দৈনিক সমকাল-এর পক্ষ থেকে জন্মদিনে আপনাকে শুভেচ্ছা। আজকের দিনটি কীভাবে কাটাবেন...

ধন্যবাদ। আমি আসলে খুব ঘটা করে কখনও জন্মদিন উদযাপন করিনি। আমার পছন্দের কিছু মানুষ আছেন, যারা কয়েক দশক ধরে আমাকে জন্মদিনে ভালোবাসা দিয়ে আসছেন। ছেলেমেয়েরা বড় হওয়ার পর থেকে তারা খুব এক্সাইটেড। পরিকল্পনা করে বসে আছে বাবার জন্মদিনের কেক কখন কাটবে। এবারের দিনটি বাসায় কাটবে। আর মনটাও ভালো নেই। এই তো গত বৃহস্পতিবার নির্মাতা বাসু দা [বাসু চট্টোপাধ্যায়]-কে হারিয়েছে।

বাসু চট্টোপাধ্যায় সঙ্গে আপনার পরিচয় হয়েছিল কীভাবে?

তার নামের সঙ্গে অনেক আগে থেকেই পরিচিত ছিলাম। তার সঙ্গে দেখা হয়েছে অনেক পরে। একদিন আশীর্বাদ চলচ্চিত্রের কর্ণধার হাবিব খান ভাই ফোন করে বললেন- সকাল ৮টার মধ্যে গুলশানের একটি ক্লাবে দেখা করতে। জানালেন সেখানে বাসু চট্টোপাধ্যায় থাকবেন। পরদিন সময়মতো সেখানে গিয়ে দেখলাম, সাদা চুল আর সফেদ পাঞ্জাবি-পায়জামা, পরিপাটি একজনকে। জানলাম তিনিই বাসু চট্টোপাধ্যায়। আমাকে দেখে বললেন- 'তুমি কি শুধু জিন্স আর টি-শার্ট পরো?' আমি বললাম, 'না। সব ধরনের পোশাকই পরি।' পরে তিনি আমাকে একটি চিত্রনাট্য দিয়ে বললেন, 'পড়ে জানিও। ভালো লাগলে তোমাকে নিয়েই কাজটি করতে চাই। এভাবেই শুরু হলো তার সঙ্গে আমার পথচলা।

তার সঙ্গে আপনার অনেক স্মৃতি আছে নিশ্চয়ই?

১৯৯৭ সাল থেকে আমৃত্যু তার সঙ্গে আমার সঙ্গে যোগাযোগ ছিল। তার পরিচালনায় চারটি সিনেমা করেছি। তার চিত্রনাট্যে 'এক কাপ চা' বানিয়েছি। কলকাতায় যে কোনো কাজে গেলে তার সঙ্গে দেখা হতো। গল্প করতাম, বাইরে খেতাম। তার উৎসাহেই আমি চলচ্চিত্র প্রযোজনা করেছি। মজার একজন মানুষ ছিলেন তিনি। বাসুদার জন্য আজকের ফেরদৌস হয়ে ওঠা।

আলমগীর কুমকুম, আমজাদ হোসেন, দীলিপ বিশ্বাস, চাষী নজরুল ইসলামসহ অনেক গুণী নির্মাতার সঙ্গে কাজ করেছেন। এখনকার নির্মাতাদের সঙ্গে কাজ নিয়ে আপনি কতটা সন্তুষ্ট?

প্রত্যেকটি নির্মাতারই আলাদা দৃষ্টিভঙ্গি থাকে। নবীন-প্রবীণ আমার কাছে মুখ্য নয়। নতুনরাও অনেক উদ্যম নিয়ে কাজ করেন। আমি ক্যারিয়ারে ৫০ জনেরও বেশি নতুন নির্মাতার সঙ্গে কাজ করেছি। যখন প্রবীণ নির্মাতাদের সঙ্গে করি তখন মনে হয়ে আমি আরেকটা নতুন ক্লাসে ভর্তি হলাম। নতুন নির্মাতাদের সঙ্গে কাজও খুব এনজয় করি।

© সমকাল ২০০৫ - ২০২০

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি । প্রকাশক : এ কে আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ (প্রিন্ট), +৮৮০১৮১৫৫৫২৯৯৭ (অনলাইন) | ইমেইল: samakalad@gmail.com (প্রিন্ট), ad.samakalonline@outlook.com (অনলাইন)