ইতালিতে মাঠে ঈদের নামাজ, প্রবাসীদের মাঝে নেই আমেজ

২৩ মে ২০২০ | আপডেট: ২৩ মে ২০২০

ইউসুফ আলী, ইতালি

ইতালিতে মুসলমানদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদুল ফিতর রোববার উদযাপিত হবে। রোমসহ ইতালির বিভিন্ন মসজিদের পাশাপাশি একাধিক খোলা মাঠে আয়োজন করা হবে ঈদের নামাজ।

তবে এবার প্রবাসীদের মাঝে নেই তেমন ঈদের আমেজ। গহনা কিংবা পোশাকের দোকানগুলোতে নেই ক্রেতার ভিড়। এবার সম্ভব হবে না খুশির এই দিনটিতে একে অপরকে কোলাকুলি করা। ইতালিতে প্রায় ৩ মাস একটানা কর্মহীন হাজার হাজার প্রবাসী। ঘরে অবরুদ্ধ বন্দী জীবন কাটিয়েছে প্রায় পুরো রমজান। অনেকগুলো শর্ত পূরণ করে নির্দিষ্ট সংখ্যক আড়াই মাস পর শুক্রবার রমজানে প্রথম জুমা পড়ার সুযোগ হয়েছে ইতালির মুসলমানদের।

ইতালির প্রশাসন অবশেষে ঈদের নামাজ আদায় করার অনুমতি দিয়েছে। ফলে রোমের কেন্দ্রীয় মসজিদসহ ইতালির সব শহরে সরকার ঘোষিত নিয়ম অনুসরণ করে ঈদের নামাজ আদায় করা সম্ভব হবে। রোববার সকাল ৭টা থেকে রোমের বাংলাদেশি অধ্যুষিত বিভিন্ন মসজিদ এবং একাধিক খোলা মাঠে ঈদের নামাজ অনুষ্ঠিত হবে। জাতীয় ঈদ উদযাপন কমিটির উদ্যোগে রোমের পিয়াচ্ছা ভিত্তোরিও ইমানুয়েলে’র খোলা মাঠে একাধিক জামাত অনুষ্ঠিত হবে। 

ঈদের স্বাভাবিক যে চিত্র, ইতালী প্রবাসীদের মধ্যে এবার কিছুই নেই। বিশেষকরে আর্থিকভাবে চরম মন্দার মধ্যে পুরো দেশ। কর্মজীবী প্রবাসীরা সরকারি সহায়তার অর্থ এখনও পায়নি। ব্যবসায়ীদের অবস্থা আরও শোচনীয়। প্রতিষ্ঠান খুলে দেয়া হলেও ক্রেতা নেই। 

প্রবাসী সামসুল আরেফিন সমকালকে বলেন, ত্রিশ বছরের জীবনে এমন নিরানন্দের ঈদ কখনও আসেনি। কর্মহীন অলস সময় কাটাচ্ছি। টুরিস্ট নির্ভর হোটেলে কাজ করায় সেটি কখন শুরু করতে পারবো তাও নিশ্চিত নয়। সরকারের সহায়তা এখনও পাইনি। ফলে পরিবার ও সন্তান নিয়ে চরম অনিশ্চয়তায় পড়েছি। ঈদের আনন্দ বলতে সামনে একরাশ শংকা। 

রোম’র এশিয়ান গোল্ড’র স্বত্তাধিকারী শাহাদাত হোসাইন রনি বলেন, বছরের প্রধান ব্যবসাই হয়ে থাকে ঈদ এবং নববর্ষে। এবার করোনার কারণে ইতালি প্রবাসীদের আর্থিক অবস্থা ভাল নয়। আর্থিকভাবে স্বচ্ছল না থাকলে কে আসবে সোনা কিনতে। ব্যবসার ইতিহাসে এরকম মন্দা আগে কখনও আসেনি।    

পোশাকের জন্য রোমের অন্যতম সুপরিচিত প্রতিষ্ঠান লায়লা ফ্যাশন’র স্বত্তাধিকারী লায়লা শাহ জানান, প্রতিষ্ঠানের গত ১৭ বছরের ইতিহাসে এতো কম বিক্রি কখনো হয়নি। পোশাকের পর্যাপ্ত সরবরাহ থাকলেও ক্রেতার সংখ্যা কম। করোনার কারণে প্রবাসীদের আর্থিক অবস্থা এবার বেশ খারাপ। ব্যবসায় সেটির ব্যাপক প্রভাব পড়েছে।

© সমকাল ২০০৫ - ২০২০

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি । প্রকাশক : এ কে আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ (প্রিন্ট), +৮৮০১৮১৫৫৫২৯৯৭ (অনলাইন) | ইমেইল: samakalad@gmail.com (প্রিন্ট), ad.samakalonline@outlook.com (অনলাইন)