করোনা আতঙ্কে ভর্তি নেয়নি হাসপাতাল, বিনা চিকিৎসায় ঢাবি শিক্ষার্থীর মৃত্যুর অভিযোগ

০৬ এপ্রিল ২০২০

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক

সুমন চাকমা - সংগৃহীত ছবি

ফুসফুসে পানি জমে দীর্ঘদিন ধরে ক্যান্সারে আক্রান্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) আদিবাসী এক শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে। সুমন চাকমা নামে ওই শিক্ষার্থী সোমবার সকালে গ্রামের বাড়ি খাগড়াছড়িতে মারা যান। তিনি ঢাবির শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন। 

এদিকে বিনা চিকিৎসায় সুমনের মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন সহপাঠীরা। ফুসফুসে পানি জমায় করোনা আতঙ্কে ঢাকার কোনো হাসপাতাল তাকে চিকিৎসা দেয়নি বলে অভিযোগ তাদের।

সুমনের সহপাঠী অনন্যা অনু বলেন, সুমন দীর্ঘদিন ধরে জটিল রোগে আক্রান্ত ছিলেন। ভারত থেকে চিকিৎসা নিয়ে দেশে ফিরেছিলেন। সম্প্রতি ফুসফুসে পানি জমায় তাকে ঢাকার বিভিন্ন হাসপাতালে নেওয়া হয়। তবে করোনা আতঙ্কে কেউ ভর্তি নেয়নি। পরে তাকে গ্রামের বাড়িতে নিয়ে যাওয়া হয়। শেষ পর্যন্ত বিনা চিকিৎসায় তার মৃত্যু হলো।

তার আরেক সহপাঠী ডাকসুর সমাজসেবা সম্পাদক আখতার হোসেন বলেন, ১০ দিন আগে ফেসবুকে সুমন লিখেছিল, 'আমার করোনা হয়নি অথচ পরিস্থিতি দেখে মনে হচ্ছে করোনার জন্যই আমাকে মারা যেতে হবে।' কে জানত এ কথাই সত্যি হবে? ফুসফুসের অসুখ নিয়ে হাসপাতালের দ্বারে দ্বারে ঘুরতে ঘুরতে সে হারিয়ে গেছে।

কানেতা ইয়া লাম লাম নামে তার বিভাগের এক শিক্ষার্থী বলেন, ফুসফুসে পানি জমায় করোনার ভয়ে তাকে কোনো হাসপাতাল চিকিৎসা দিতে চায়নি। এটা কি মৃত্যু, না হত্যা?




© সমকাল ২০০৫ - ২০২০

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি । প্রকাশক : এ কে আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ (প্রিন্ট), +৮৮০১৮১৫৫৫২৯৯৭ (অনলাইন) | ইমেইল: samakalad@gmail.com (প্রিন্ট), ad.samakalonline@outlook.com (অনলাইন)