জার্মানিকে রুখে দিল আর্জেন্টিনা

১০ অক্টোবর ২০১৯

অনলাইন ডেস্ক

ছবি: গোল

দলের খেলা নিয়ে সম্ভবত কোন কোচই খুশি নন। দুই গোলে এগিয়ে থেকেও ২-২ গোলের সমতা নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয়েছে জার্মানির। প্রথমার্ধে দুই গোল খাওয়া লিওনেল স্কালোনির আর্জেন্টিনা হার বাঁচিয়ে মাঠ ছেড়েছে। তাও জার্মানিতে এসে। এজন্য হয়তো শিষ্যদের হাল না ছাড়ার মানসিকতার জন্য কোচের প্রশংসা পাবেন আর্জেন্টিনা ফুটবলারর। কিন্তু প্রথমার্ধে বলের নিয়ন্ত্রন রেখে গোল না করতে পেরে বরং হজম করায় নিশ্চয় অখুশি আর্জেন্টিনা কোচও।

ম্যাচের ১৭ মিনেটের মাথায় বায়ার্ন মিউনিখের তরুণ ফরোয়ার্ড সের্গি গিনাব্রি গোল করে দলকে এগিয়ে নেন। তরুণ এই ফুটবলার ক'দিন আগে বায়ার্নের হয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগের ম্যাচে টটেনহ্যামের মাঠে গিয়ে একাই চার গোল করেন। দলকে জেতান ৭-২ গোলের বড় ব্যবধানে। সেই ফর্ম জাতীয় দলের হয়েও দেখান তিনি। ম্যাচের ২২ মিনিটে আবার গোল করে জার্মানি। কাই হাভার্টেজ দলকে ২-০ গোলের লিড এনে দেন। তাকে দারুণ বলের যোগান দেন গিনাব্রি। ওই গোল নিয়েই প্রথমার্ধ শেষ করে জার্মানি। যদিও প্রথমার্ধে গোল করার আরও সুযোগ পায় স্বাগতিকরা।

আর্জেন্টিনা দ্বিতীয়ার্ধে দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়ায়। ম্যাচের ৬৬ মিনিটের মাথায় পাউলো দিবালার বদলি নামা লুকাস আলারিও গোল করে ব্যবধান কমান। জার্মানির হাভার্টেজের মতো তিনিও জার্মান ক্লাব বায়ার লেভারকুসেনে খেলেন। এরপর ম্যাচের ৮৫ মিনিটে গোল করেন লুকাস অকাম্পোস। লা লিগার ক্লাব সেভিয়ায় খেলা ২৫ বছর বয়সী এই ফুটবলার গোল করে আলবেসেলেস্তেদের হারের লজ্জার হাত থেকে বাঁচান।

ম্যাচে অবশ্য বল দখলের হিসেবে এগিয়ে ছিল আর্জেন্টিনা। প্রথমার্ধে শুরুতে ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ ছিল স্কালোনির দলের অধীনে। ঠিক দ্বিতীয়ার্ধের শেষটা আবার নিজেদের নিয়ন্ত্রণে ম্যাচ রাখে আর্জেন্টিনা। শেষ দিকে গোল করে সমতায় ফেরার পাশাপাশি গোল হওয়ার মতো আরও দুটি সুযোগ তৈরি করে তারা। তবে সামগ্রিকভাবে ম্যাচে আক্রমণ বেশি করেছে চারবারের বিশ্ব ‌চ্যাম্পিয়ন জোয়াকিম লোর জার্মানি।

© সমকাল ২০০৫ - ২০২০

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি । প্রকাশক : এ কে আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ (প্রিন্ট), +৮৮০১৮১৫৫৫২৯৯৭ (অনলাইন) | ইমেইল: samakalad@gmail.com (প্রিন্ট), ad.samakalonline@outlook.com (অনলাইন)