খেলাপি ঋণ কমাতে বাংলাদেশ ব্যাংকের উদ্যোগ জানতে চায় সংসদীয় কমিটি

০৮ মে ২০১৯

সমকাল প্রতিবেদক

রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকসহ বিভিন্ন আর্থিক প্রতিষ্ঠানে খেলাপি ঋণ বেড়ে যাওয়া, ব্যাংক কর্মকর্তাদের দুর্নীতিতে জড়িয়ে পড়া এবং আর্থিক খাতে বিশৃঙ্খলা ঠেকাতে বাংলাদেশ ব্যাংকের উদ্যোগ সম্পর্কে জানতে চেয়েছে সরকারি প্রতিশ্রুতি সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটি। তারা বলেছে, আর্থিক খাতের শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে রেগুলেটরি অথরিটি হিসেবে বাংলাদেশ ব্যাংকের কার্যক্রম সন্তোষজনক নয়।

বুধবার সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত সরকারি প্রতিশ্রুতি সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির বৈঠকে অর্থ মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন বিভিন্ন কার্যক্রম নিয়ে আলোচনা হয়। কমিটির সভাপতি আলী আশরাফের সভাপতিত্বে বৈঠকে কমিটির সদস্য দবিরুল ইসলাম, মুজিবুল হক, আব্দুল মান্নান, ফখরুল ইমাম ও ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা অংশ নেন।

বৈঠক শেষে কমিটির সভাপতি মো. আলী আশরাফ সাংবাদিকদের বলেন, খেলাপি ঋণ, কু ঋণ বাড়ছে। ব্যাংক কর্মকর্তার ব্যক্তিগত হিসেবে ৩৫ কোটি টাকা পাওয়া গেছে। এ ধরনের ঘটনা একের পর এক ঘটতে থাকলে বাংলাদেশ ব্যাংকের কাজ কী? রেগুলেটরি বডি হিসেবে তার কাজ বাড়াতে হবে। আর্থিক খাতে শৃঙ্খলা আনতে হবে। কমিটির পক্ষ থেকে জানতে চাওয়া হয়েছে— খেলাপি ঋণ কমাতে বাংলাদেশ ব্যাংক কী করেছে? জনগণ এসব প্রশ্নের সদুত্তর চায়।

বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, ব্যাংক খাতে মোট খেলাপি ঋণ এখন ১ লাখ ৩০ হাজার কোটি টাকার (অবলোপনসহ) বেশি, যে অঙ্ক চলতি অর্থবছরের বাজেটের এক-তৃতীয়াংশেরও বেশি। অর্থমন্ত্রীর ঘোষণার পর সম্প্রতি কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ঋণ অবলোপন নীতিতে পরিবর্তন আসে, যা ব্যাংকগুলোকে খেলাপি ঋণ কম দেখানোর সুযোগ করে দেয়।

ঋণ খেলাপিদের মোট ঋণের ২ শতাংশ ডাউন পেমেন্টে ৯ শতাংশ সুদে ১২ বছরে ওই টাকা পরিশোধের সুযোগ করে দেওয়া হয়েছে। এছাড়া ব্যবসায়ীরা চাইলে মেয়াদ শেষ হওয়ার পর আরও ছয় মাস টাকা না দিয়ে খেলাপিমুক্ত থাকতে পারবেন।

সংসদ সচিবালয়েরে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, কমিটি আর্থ সামাজিক উন্নয়নের লক্ষ্যে আর্থিক খাতে শৃঙ্খলা আনতে বাংলাদেশ ব্যাংকসহ অন্যান্য নিয়ন্ত্রক প্রতিষ্ঠানকে আরও সক্রিয়ভাবে কাজ করার সুপারিশ করে।

© সমকাল ২০০৫ - ২০২০

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি । প্রকাশক : এ কে আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ (প্রিন্ট), +৮৮০১৮১৫৫৫২৯৯৭ (অনলাইন) | ইমেইল: samakalad@gmail.com (প্রিন্ট), ad.samakalonline@outlook.com (অনলাইন)