পজিটিভ বাংলাদেশের জন্য

০১ জানুয়ারি ২০১৮ | Updated ৩১ ডিসেম্বর ২০১৭

ওসামা বিন নূর

ওসামা বিন নূর, তরুণদের জন্য গড়ে তুলেছেন 'ইয়ুথ অপরচুনিটিজ'। সারাবিশ্বের বিভিন্ন ধরনের বৃত্তি, প্রশিক্ষণ, ইন্টার্নশিপ এবং প্রতিযোগিতার খবর জানানো হয় এখানে। ফোর্বস এর এশিয়ার সেরা তরুণ সামাজিক উদ্যোক্তাদের তালিকায় স্থান করে নেওয়া ওসামা 'দ্য কুইন্স ইয়াং লিডারশিপ অ্যাওয়ার্ড-২০১৬' পুরস্কারও লাভ করেন

২০১৭ সালে আমরা অনেক দূর এগিয়েছি। এ বছর এপ্রিলে সরকারের পক্ষ থেকে আমরা নতুন অফিস পেয়েছি। নতুন অ্যাপের কাজ শেষ করেছি। সারা বিশ্বের বিভিন্ন ধরনের বৃত্তি, প্রশিক্ষণ, ইন্টার্নশিপ এবং প্রতিযোগিতার খবর জানানোসহ 'ইয়ুথ অপরচুনিটিস' তরুণদের সহযোগিতা করতে আরও নতুন পদক্ষেপ গ্রহণ করছে যাতে দেশ-বিদেশে আরও বেশি সংখ্যক তরুণকে এর সঙ্গে সম্পৃক্ত করা যায়। আমরা অনলাইনে সফলতা পেয়েছি, এখন অফলাইনেও কাজ করছি। প্রত্যন্ত অঞ্চলের তরুণদের কাছে পৌঁছানোর লক্ষ্যে কাজ করছি। নতুন বছরে 'ইয়ুথ অপরচুনিটিস' সবার জন্য সহজলভ্য করার উদ্দেশ্যে বাংলায় চালু করছি। প্রত্যন্ত অঞ্চলের তরুণরাও এখন প্রযুক্তির কল্যাণে নানান কার্যক্রমের অংশ হতে পারবেন।

তরুণরা এখন নিজেদের নিয়ে ব্যস্ত হচ্ছেন, বিভিন্ন কার্যক্রমে নিজেকে সম্পৃক্ত করছেন, কিন্তু আমরা এর দীর্ঘমেয়াদি ফল ভোগ করতে পারছি না। এর ফলে যে আশা নিয়ে নতুন নতুন উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে সে আশায় গুড়েবালি। আবার অনেকে সঠিকভাবে নিজেকে তৈরি করে সফলতার মুখ দেখছেন। প্রতিটি কাজের ফলোআপ, গ্রুমিং ও পৃষ্ঠপোষকতা প্রয়োজন। সঠিকভাবে কোনো কাজ বাস্তবায়িত না হলে আমরা সঠিক সেবা থেকে বঞ্চিত হই। আমরা ধৈর্যহীন হয়ে পড়ছি। তাই আমাদের ধৈর্য সহকারে কাজ করতে হবে।

তথ্যপ্রযুক্তির কল্যাণে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। পার্শ্ববর্তী দেশ থেকেও আমরা অনেক কিছুতে এগিয়ে। এই অগ্রগতিতে সিংহভাগ অবদান রাখছেন তরুণরা। তাই তরুণদের গুরুত্ব দিয়ে আগামী দিনের পরিকল্পনা গ্রহণ করতে হবে। অনলাইনে বিপুল সংখ্যক তরুণ কাজ করছেন। এ বছর তা আরও বৃদ্ধি পাবে বলে আশা করছি। তাদের এ কার্যক্রমের আর্থিক লেনদেন সহজ ও নিরাপদ করতে হবে। সেই সঙ্গে দেশের ব্র্যান্ডিং করতে হবে। আমরা দেশে বা বিদেশে যেখানেই থাকি না কেন আমাদের দেশকে পজিটিভভাবে উপস্থাপন করতে হবে। আমি যখন দেশের বাইরে যাই তখন দেশের অর্জন সম্পর্কে মানুষকে অবহিত করি। তারা বিস্মিত হন আমাদের এই অল্প সময়ে এই বিশাল অগ্রগতি সম্পর্কে জেনে। দেশের মধ্যেও আমাদের ব্র্যান্ডিং করতে হবে, যাতে এক অঞ্চলের লোকজন অন্য অঞ্চল সম্পর্কে জানতে পারে। এভাবে আমরা আমাদের দেশকে বিশ্বদরবারে একটি সুন্দর দেশ হিসেবে উপস্থাপন করতে পারব। া

© সমকাল 2005 - 2018

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি । প্রকাশক : এ কে আজাদ

১৩৬ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৮৮৭০১৭৯-৮৫, ৮৮৭০১৯৫, ফ্যাক্স : ৮৮৭০১৯১, ৮৮৭৭০১৯৬, বিজ্ঞাপন : ৮৮৭০১৯০ । ইমেইল: info@samakal.com