ভারতকে উজাড় করে দিয়েছে সরকার: রিজভী

প্রকাশ: ১০ অক্টোবর ২০১৯     আপডেট: ১৩ নভেম্বর ২০১৯      

সমকাল প্রতিবেদক

ফাইল ছবি

ভারতের সঙ্গে চুক্তি ও বুয়েটের ছাত্র আবরার ফাহাদকে হত্যার প্রতিবাদে এবং বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করেছেন দলটির নেতাকর্মীরা। 

বৃহস্পতিবার রাজধানীর নয়াপল্টন বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে এ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর নেতৃত্বে মিছিলে ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

মিছিল শেষে আয়োজিত সংক্ষিপ্ত সমাবেশে রিজভী বলেন, ভারতকে সারাজীবন মনে রাখার মত দেওয়া ট্রানজিট, বাণিজ্য, কানেক্টিভিটি, ৭ রাজ্যের নিরাপত্তা, নদী, সমুদ্র, বন্দর, সুন্দরবন, প্রতিরক্ষা, বৃহত্তম রেমিটেন্স, অবাধ রাজনৈতিক নিয়ন্ত্রণের বিপরীতে বাংলাদেশ সরকার এবার হয়তো খালি হাতে ফিরবে না। সব সরকারপ্রধানই বিদেশ সফরে কিছু না কিছু আনতে যায়। আর বাংলাদেশ সরকার ভারত সফরে গিয়ে সবকিছু উজাড় করে দিয়ে আসে। সরকারের লোকজন ভারত সফরে গেলেই দেশের মানুষের উদ্বেগ বেড়ে যায়। এবারও দেশের অনেক কিছু দিয়ে ফিরে এসেছে খালি হাতে। আবার বাংলাদেশের বন্দরগুলো ব্যবহারে ভারতের অধিকারও আছে বলে যে জাতীয় স্বার্থ পরিপন্থী বক্তব্য রাখা হয়েছে, তাতে গোটা জাতি হতভম্ব হয়ে পড়েছে।

তিনি বলেন, সরকারের সাংবিধানিক দায়িত্ব নিজ দেশের মানুষের ন্যায্য পানির অধিকার প্রতিষ্ঠা করা। নিজেদের পানি চাহিবামাত্র বিনাস্বার্থে অন্যকে উজাড় করে দিয়ে আসা নয়! এছাড়াও রোহিঙ্গা ইস্যুতে ভারতকে চাপ দেওয়া হয়নি। তিস্তার পানির ন্যায্য হিস্যা আদায়ের বদলে দিয়ে এসেছে ফেনী নদীর পানি এবং গ্যাস। জাতীয় নাগরিক নিবন্ধন (এনআরসি) বিষয়ে টু শব্দটি করেননি। যৌথ বিবৃতির কোথাও এটির উল্লেখ নেই। অথচ বাংলাদেশের মানুষ সেটি নিয়ে গভীর উদ্বেগ-উৎকন্ঠায় দিন কাটাচ্ছে। এছাড়া সীমান্ত হত্যা, বাণিজ্য ঘাটতির মতো ইস্যুগুলো এজেন্ডার কোথাও স্থান পায়নি। যা বাংলাদেশের স্বার্থ সংশ্নিষ্ট।

মিছিলে অংশগ্রহণ করেন বিএনপির ঢাকা বিভাগীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আবদুস সালাম আজাদ, ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আহসান উল্লাহ হাসান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোয়াজ্জেম হোসেন মতি, সাইফুর রহমান মিহির, কোষাধ্যক্ষ আতাউর রহমান চেয়ারম্যান, দপ্তর সম্পাদক এ বি এম এ রাজ্জাক প্রমুখ।