শেরপুরের শ্রীবরদীতে সেচ পাম্পের মোটরে বৈদ্যুতিক সংযোগ ঠিক করতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মঞ্জুরুল ইসলাম (১৮) নামে এক কলেজছাত্রের মৃত্যু হয়েছে। রোববার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

উপজেলার কেকেরচর ইউনিয়নের ভাটি লঙ্গরপাড়া চরবন্দ গ্রামের মনু মিয়ার ছেলে মঞ্জুরুল। তিনি শেরপুর সরকারি কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থী ছিলেন।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সকাল সাড়ে ৯টার দিকে চরবন্দ গ্রামে আমনের বীজতলায় পানি দিতে যান মঞ্জুরুল ও তার চাচা আনোয়ার। তখন সেচ পাম্প চালাতে গেলে সেটির মোটরের বৈদ্যুতিক সংযোগে সমস্যা দেখা দেয়। মঞ্জুরুল সেই সংযোগ ঠিক করতে গেলে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন এবং ঘটনাস্থলেই মারা যান। চাচা আনোয়ার ভাতিজাকে রক্ষা করতে এসে আহত হন। তাকে স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

মঞ্জুরুলের বাবা একমাত্র ছেলেকে হারিয়ে পাথর হয়ে গেছেন। তিনি ছেলের মরদেহ কাটাছেঁড়া করাতে চান না। তাই শেরপুরের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেটের (এডিএম) কাছে নিহত পরিবারের পক্ষ থেকে বিনা ময়নাতদন্তে মরদেহ দাফনের জন্য আবেদন করা হয়েছে।

শ্রীবরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বিপ্লব কুমার বিশ্বাস বলেন, এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা করা হয়েছে।