আবারও আলাউদ্দীন আলীর দেহে ক্যান্সারের অস্তিত্ব

প্রকাশ: ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯     আপডেট: ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯      

বিনোদন প্রতিবেদক

আবারও ক্যান্সার ধরা পড়েছে দেশের বরেণ্য গীতিকার, সুরকার, সংগীত পরিচালক আলাউদ্দীন আলীর দেহে। মঙ্গলবার প্রয়োজনীয় পরীক্ষার পর চিকিৎসকেরা  তার ফুসফুসে নতুন করে টিউমারের অস্তিত্ব দেখা গিয়েছে বলে জানিয়েছেন।পাশাপাশি তার যকৃতেও টিউমার পাওয়া গেছে। ফলে ক্রমেই তার শারীরিক অবস্থা অবনতির দিকে বলে শুক্রবার সমকাল অনলাইনকে জানান আলাউদ্দীন আলীর স্ত্রী ফারজানা মিমি।

বুধবার মহাখালির একটি হাসপাতালে আলাউদ্দীন আলীর শরীরের কয়েকটি পরীক্ষা করা হয়। সেখানকার রিপোর্টে আবারও ক্যান্সারের আভাস পাওয়া যায়। সেই রিপোর্ট  থাইল্যান্ডের স্যামিটিভেজ সুকুমভিত হাসপাতাল ও ব্যাংকক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে জানান তার স্ত্রী। 

সেখানকার চিকিৎসরকরা রিপোর্টগুলো দেখে দ্রুত আলাউদ্দীন আলীকে দ্রুত সেখানে নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন। এখন চলছে আলাউদ্দীন আলীকে বিদেশে নেয়ার প্রস্তুতি। ইতোমধ্যে ভিসার জন্য আবেদনও করা হয়েছে। ভিসা পাওয়া মাত্রই আলাউদ্দীন আলীকে থাইল্যান্ডে নিয়ে যাওয়া হবে।

এর আগে ২০১৫ সালে স্যারের ক্যান্সার ধরা পড়েছিলো আলাউদ্দীন আলীর। সেই সময় টানা ৬ মাস চিকিৎসার পর সুস্থ হয়ে উঠেন তিনি। চার বছর পর আবারও ক্যান্সারের অস্তিত্ব দেখা মিলছে তার শরীরে। 

এদিকে প্রায় ছয় মাস চিকিৎসা শেষে সম্প্রতি বাসায় ফিরেছেন আলাউদ্দীন আলী। এই ৬ মাসে তার চিকিৎসা বাবদ প্রায় ৫০ লক্ষ টাকার বেশি খরচ হয়েছে বলে জানায় তার পরিবার। ফলে আর্থিক অনটনের মধ্যে পড়েছে আলাউদ্দীন আলীর পরিবার।