সফলতা পেয়েছেন আদিবা সুমাইয়া খান। তিনি আন্তর্জাতিক বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় সফটওয়্যারের নানা সমস্যা সমাধানের প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে এ সাফল্য অর্জন করেন। এসব সাফল্য তাঁকে এনে দিয়েছে অ্যামাজন থেকেও অফার। তাঁর স্বপ্ন ছিল আরও বড়, সে কারণে তাঁকে আর থেমে থাকতে হয়নি। এরই মধ্যে তাঁর কাছে চলে আসে নাসার প্রজেক্টে কাজ করার সুযোগ।

পর্যায়ক্রমে পাঁচটি ধাপে পরীক্ষা দিয়ে তিনি উত্তীর্ণ হন। ইতোমধ্যে লুইজিয়ানা টেক ইউনিভার্সিটি থেকেও ফুল স্কলারশিপে পিএইচডির সুযোগ পেয়েছেন আদিবা। তিনি এখন নাসায় কাজ করার পাশাপাশি পিএইচডিও করবেন।

আদিবার বাবা বীর মুক্তিযোদ্ধা গুলজার হোসেন খান। আদিবা ট্রিপল 'ই'তে গ্র্যাজুয়েশন করেছিলেন। পরে ইনফোটেক লিমিটেডে জয়েন করেছিলেন ট্রেইনি সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে।