বুকারজয়ী ব্রিটিশ ঔপন্যাসিক সালমান রুশদি (৭৫) দুই সপ্তাহ আগে একটি সাক্ষাৎকার দিয়েছিলেন। সেখানে তিনি বলেছিলেন, তিনি মনে করছেন ইরানি ফতোয়া পুরোনো হয়ে গেছে, তাই জীবনযাপন ‘স্বাভাবিক’ হয়ে গেছে। 

যুক্তরাষ্ট্রের স্টার্ন ম্যাগাজিনের নেওয়া ওই সাক্ষাৎকারটি আগামী সপ্তাহে প্রকাশের কথা ছিল। কিন্তু তার ওপর হামলার ঘটনায় এটি আগেই সামনে চলে আসে। খবর ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি অনলাইনের।

ম্যাগাজিনটি জানায়, সাক্ষাৎকার দিতে রুশদি কোনোরকম নিরাপত্তা ছাড়াই উপস্থিত হয়েছিলেন। দেখে মনে হচ্ছিল তিনি উদ্বেগহীন আছেন। এই ব্যাপারে তাকে জিজ্ঞাসা করলে তিনি বলেছিলেন, ইরানি ফতোয়া কয়েক দশকের পুরোনো হয়ে গেছে। 

শুক্রবার যুক্তরাষ্ট্রে একটি অনুষ্ঠান মঞ্চে তিনি ছুরিকাঘাতের শিকার হন। বর্তমানে সংকটজনক অবস্থায় তাকে ভেন্টিলেটরে নেওয়া হয়েছে। এখনো তিনি কথা বলতে পারছেন না। একটা চোখও নষ্ট হয়ে যেতে পারে বলে তার এজেন্ট জানিয়েছে। 

তার লেখা ‘দ্য স্যাটেনিক ভার্সেস’ প্রকাশের পর থেকেই তিনি জীবননাশের হুমকি পেয়ে আসছিলেন। কিছু মুসলিম এই বইটিকে ব্ল্যাসফেমি হিসেবে দেখে। 

এদিকে তার ওপর হামলার ঘটনায় বিশ্বব্যাপী নিন্দার ঝড় বইছে। এই হামলাকে মত প্রকাশের স্বাধীনতার ওপর হামলা হিসেবে দেখা হচ্ছে। বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ এই হামলার নিন্দা জানাচ্ছেন।