ইউক্রেনে রাশিয়ার আগ্রাসনের আড়াই মাস অতিবাহিত হয়েছে। দেশটিতে যুদ্ধাপরাধের অভিযোগে এই প্রথম কোন রুশ সেনার বিচারকাজ শুরু করেছে। ২১ বছর বয়সী ভাদিম শিসিমারিন নামের ওই যোদ্ধার বিরুদ্ধে নিরস্ত্র বেসামরিক নাগরিককে হত্যার অভিযোগ আনা হয়েছে। 

যুদ্ধের আইন ও রীতিনীতি সংক্রান্ত ইউক্রেনের ফৌজদারি অপরাধের শাস্তির ধারা অনুযায়ী তিনি যাবজ্জীবন সাজা পেতে পারেন। খবর বিবিসির। 

ইউক্রেনের উত্তর পূর্বাঞ্চলীয় গ্রাম চুপাখিভকায় গাড়ির জানালা দিয়ে ৬২ বছর বয়সী এক নিরস্ত্র ইউক্রেনীয়কে হত্যার অভিযোগ আনা হয়েছে রুশ সার্জেন্ট ভাদিম শিসিমারিনের বিরুদ্ধে। ইউক্রনে হামলার প্রথম সপ্তাহেই হত্যাকাণ্ডের শিকার হন ওই প্রবীণ নাগরিক।

পরবর্তীতে ২১ বছর বয়সী ওই রুশ যোদ্ধাকে আটক করে ইউক্রেনীয় সেনারা। তিনি ট্যাংক ইউনিটের দায়িত্বে ছিলেন। 

এদিকে রাশিয়ার সেনাদের হাজার হাজার যুদ্ধাপরাধ চিহ্নিত করেছে বলেও জানিয়েছে ইউক্রেন।