পানির নিচের আগ্নেয়গিরিতে বিশাল অগ্ন্যুৎপাতের ঘটনার পর প্রশান্ত মহাসাগরীয় দেশ টোঙ্গায় সুনামি আঘাত হেনেছে। তবে এ ঘটনায় তাৎক্ষণিকভাবে হতাহতের কোনো খবর পাওয়া যায়নি। 

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করা ফুটেজে দেখা যায়, সাগরের পানি শহরের ভেতরের একটি গির্জা ও কয়েকটি বাড়ির ভেতর দিয়ে বয়ে যাচ্ছে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, আগ্নেয়গিরি থেকে উদ্গিরিত ছাই রাজধানী নুকুআলোফায় এসে পড়ছে। খবর বিবিসি অনলাইনের। 

স্থানীয় সময় শনিবার বিকেলে টোঙ্গার উপকূলে হুনগা টোঙ্গা–হুনগা হাপাই আগ্নেয়গিরির অগ্ন্যুৎপাত শুরু হয়। এর জেরে দেশটির দক্ষিণ প্রশান্ত মহাসাগর উপকূলে ভূকম্পন অনুভূত হয়। এর পরপরই দেশটির আবহাওয়া দপ্তর দেশজুড়ে সুনামি সতর্কতা জারি করে। আর সতর্কতা জারির পর টোঙ্গার বাসিন্দারা উঁচু স্থানগুলো আশ্রয় নিতে ছুটে যায়।

টোঙ্গার রাজধানী নুকুআলোফা থেকে ৬৫ কিলোমিটার উত্তরে অবস্থিত এই আগ্নেয়গিরি। মেরে টাউফা নামে টোঙ্গার এক বাসিন্দা জানান, তাদের পরিবার রাতের খাবারের প্রস্তুতি নেওয়ার সময় আগ্নেয়গিরির অগ্ন্যুৎপাত ঘটে। তার ছোট ভাই মনে করেছিলেন কাছে কোথাও বোমার বিস্ফোরণ ঘটেছে।