পুরোনো দলিলপত্র বা চিঠি পড়ার সময় ছিঁড়ে যাওয়ার ঝুঁকি থাকে। অনেক সময় প্রাচীন নিদর্শন বা শিলালিপির লেখা পড়া সম্ভব হয় না। এই সমস্যা সমাধানের উপায় উদ্ভাবন করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাসাচুসেটস ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজির বিজ্ঞানীরা। তারা ৩০০ বছরের পুরোনো একটি চিঠির আদ্যোপান্ত পড়ে ফেলেছেন ভাঁজ না খুলেই। 

নেদারল্যান্ডসের হেগের একটি ডাকঘরের ট্রাঙ্কে এই চিঠি রাখা ছিল। বাক্সটি না খুলেই এক্স-রের 'চোখ' দিয়ে চিঠি পড়েছেন বিজ্ঞানীরা। সদ্য উদ্ভাবিত পদ্ধতি আগামী দিনে ইতিহাসবিদদের অনেক পুরোনো দলিলপত্র ও পাণ্ডুলিপি পড়তে সহায়ক হবে। 

আন্তর্জাতিক বিজ্ঞান-জার্নাল নেচার কমিউনিকেশন্সে প্রকাশিত গবেষণাপত্রে বলা হয়, এক্স-রে দিয়ে সেই চিঠির প্রতিটি ভাঁজ স্ক্যান করা হয়। এরপর কম্পিউটার অ্যালগরিদমের মাধ্যমে তা পড়া হয়।

বিজ্ঞানীরা বলেন, তিন শতাব্দী আগে কেউ চিঠিটি সুরক্ষিত রাখতে এবং নষ্ট হয়ে যাওয়া রোধে বিশেষভাবে ভাঁজ করে বাক্সে তালাবন্ধ করে রাখে। এমনকি, এভাবে ভাঁজ করে রাখলে যে কোনো চিঠির লিপি অবিকৃত থাকে, তা ১৭ শতক থেকেই জানা ছিল। একে বলা হয়, 'লেটারলকিং'। হেগের ওই ডাকঘরে এমন ৫৭৭টি চিঠি পাওয়া গেছে।

মন্তব্য করুন