‘বেইজিংয়ের কারণেই ভারত-চীন সম্পর্ক বিনষ্ট’

প্রকাশ: ০৬ আগস্ট ২০২০   

অনলাইন ডেস্ক

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

সাম্প্রতিক বছরগুলোতে ভারত ও চীনের মধ্যে গড়ে ওঠা আন্তরিক সম্পর্ক বিনষ্ট হয়েছে সীমান্তে বেইজিংয়ের কর্মকাণ্ডের কারণেই। এমনটিই মনে করছেন চীনা সরকারের বিরোধীস্বর হিসেবে পরিচিত ‘সিটিজেন পাওয়ার ইনিশিয়েটিভ ফর চায়না’র প্রতিষ্ঠাতা প্রেসিডেন্ট জিয়ানলি ইয়াং। তিনি চীনের সাবেক এক কমিউনিস্ট পার্টির নেতার ছেলে। খবর এএনআই ও জিনিউজের। 

নিউজ উইকে একটি ওপিনিয়ন পোস্টে জিয়ানিলি লিখেছেন, চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির মধ্যে ২০১৮ সালে উহানে এবং ২০১৯ সালে মামাল্লাপুরামে শীর্ষ সম্মেলনের ফলস্বরূপ দুই দেশের মধ্যে যে সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক তৈরি করেছিল, তা এবার প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখায় চীনের পদক্ষেপের কারণে বিপন্ন হয়েছে। 

চীনের উহান থেকে ছড়িয়ে পড়া মহামারি করোনাভাইরাসে বিপর্যস্ত বিশ্ব। জিয়ানলি বলেন, একদিকে মহামারি ভাইরাসটি চীন সঠিকভাবে মোকাবেলা করতে ব্যর্থ হয়েছে, অন্যদিকে করোনাকালীন সময়ের মধ্যেই নিজের কুৎসিত, অবিশ্বাসী চেহারাটি ভারতকে দেখিয়ে দিল দেশটি। 

জিয়ানলির মতে, এর প্রতিক্রিয়া হিসেবে ভারত বিভিন্ন ক্ষেত্রে কূটনীতি, সামরিক, অর্থনীতি ও প্রযুক্তিগত পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। এতে অন্যান্য দেশগুলোও ভারতের সমর্থনে সোচ্চার হয়েছে এবং হিমালয় অঞ্চলে চীনের সর্বশেষ সম্প্রসারণবাদী পদক্ষেপের বিরোধিতা করেছে। 

উল্লেখ্য, গত ২০ জুন রাতে ভারত-চীন সীমান্তের গালওয়ান উপত্যকায় দুই দেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনীর সংঘর্ষে ভারতীয় মেজরসহ ২০ সেনা প্রাণ হারান। ওই সংঘর্ষে চীনের কতজন সেনা হতাহত হয়েছে, তা প্রকাশ করেনি দেশটি।