বিয়ের বাধা উঠেছে নিউইয়র্কে, আনুষ্ঠানিকতা ভিডিও কনফারেন্সে

প্রকাশ: ১৯ এপ্রিল ২০২০   

অনলাইন ডেস্ক

করোনাভাইরাসের কারণে দেশে দেশে চলছে লকডউন। যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কেও বাড়ি থেকে বের হওয়া নিষেধ। কয়েক সপ্তাহ আগে শুরু হওয়া লকডাউনের কারণে তাই বন্ধ বিয়ের অনুষ্ঠানও। শনিবার থেকে অবশ্য রাজ্যটিতে বিয়ের ক্ষেত্রে শিথিলতা দেওয়া হয়েছে। তবে বর-কনের বিয়ে করতে হবে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে।

বার্তা সংস্থা এপির বরাত দিয়ে টাইমস অব ইন্ডিয়া অনলাইনের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, অনলাইনে বিয়ের লাইসেন্স পেতে আর কোনো বাধা থাকবে না। এতদিন লকডাউনের কারণে যে প্রতিষ্ঠানগুলো বিয়ের লাইসেন্স দেয়, তা বন্ধ ছিল। এখন থেকে অনলাইনে সেই প্রতিষ্ঠানগুলো বিয়ের লাইসেন্স দেবে। তবে বর-কনে বিয়ে করবেন আলাদা আলাদা জায়গায় থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে।

স্থানীয় সময় শনিবার সংবাদ সম্মেলনে নিউইয়র্কের গভর্নর অ্যান্ড্রু কুমো হাসি হাসি মুখে বলেন, বিয়ের ক্ষেত্রে আর কোনো বাধা নেই। কোনোই বাধা নেই। তাড়াতাড়ি বিয়ে করে ফেলুন।

কয়েকদিন আগে নিউইয়র্ক শহরের মেয়র বিল ডি ব্লাসিওকে সাংবাদিকেরা অনলাইনে বিয়ের আবেদনের ব্যাপারে প্রশ্ন করেন। এক সাংবাদিক বলেন, করোনাভাইরাসের কারণে অনেকেই কর্মহীন হওয়ার ঝুঁকিতে আছেন। তাদের মধ্যে অনেকেই দ্রুত বিয়ে করতে চাইছেন যাতে চাকরি হারানোর আগেই স্বামী-স্ত্রী একসঙ্গে একটি স্বাস্থ্য বীমা করিয়ে নিতে পারেন।

তখন কুমো বলেছিলেন, ‘আমরা চাই না মানুষ এমনটা ভাবুক যে, বিয়ে না করলে স্বাস্থ্য বীমা মিলবে না।’ এরপর শনিবার অনলাইনে বিয়ের লাইসেন্স পাওয়ার কথা বললেন গভর্নর কুমো।

করোনার প্রভাবে শুধু নিউইয়র্ক শহরেই ৫ লাখ মানুষ কর্মহীন হয়ে পড়ার আশঙ্কায় রয়েছেন।