দাবানলে নিউ সাউথ ওয়েলসে জরুরি অবস্থা

প্রকাশ: ০২ জানুয়ারি ২০২০     আপডেট: ০২ জানুয়ারি ২০২০      

অনলাইন ডেস্ক

আগুন নেভানোর চেষ্টা করছেন ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা-বিবিসি

অস্ট্রেলিয়ার সমুদ্র-উপকূলবর্তী বেশ কয়েকটি শহরের দাবানল ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। দেশটির ভিক্টোরিয়া ও নিউ সাউথ ওয়েলস অঙ্গরাজ্যে এরইমধ্যে পুড়ে গেছে ১ হাজার ২শ’ ঘরবাড়ি।

এমন পরিস্থিতিতে নিউ সাউথ ওয়েলসের প্রধানমন্ত্রী গ্লাডাইস ব্রেজিকলিয়ান রাজ্যে সপ্তাহব্যাপী জরুরি অবস্থা জারি করেছেন। খবর বিবিসির।

বৃহস্পতিবার জরুরি অবস্থার ঘোষণা দিয়ে তিনি বলেন, আগামী শনিবার থেকে তাপমাত্রা আরও বাড়তে পারে। এর জন্য আমরা সব ধরনের সতর্কতা নিচ্ছি। ক্ষতি কমাতে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা তাদের সর্বোচ্চ দিয়ে চেষ্টা করছে। 

মঙ্গলবার শহরগুলোর হাজার হাজার আতঙ্কিত বাসিন্দা এবং সেসব শহরে বেড়াতে যাওয়া পর্যটকরা নিরাপদ আশ্রয়ের খোঁজে বাড়িঘর ছেড়ে পূর্বাঞ্চলীয় সমুদ্রসৈকতের দিকে ছুটে গিয়েছিলেন। 

ভিক্টোরিয়ায় বন্ধ করে দেওয়া গুরুত্বপূর্ণ একটি সড়ক বুধবার দুই ঘণ্টার জন্য খুলে দেওয়া হয়। 

অক্টোবর থেকে শুরু হওয়া এ দুর্যোগে নিহতের সংখ্যা ১৭ তে পৌঁছেছে বলে কর্মকর্তারা নিশ্চিত করেছেন। 

এখনও দুর্গম অনেক এলাকায় পৌঁছাতে পারেননি বলে জানিয়েছেন অগ্নি নির্বাপণ কর্মীরা। 

নিউ সাউথ ওয়েলসের ফায়ার কমিশনার শেন ফিটজসিমন বলেছেন, আমরা অনেক সাধারণ মানুষ আহত বা দগ্ধ হওয়ার খবর পেয়েছি। তবে রাস্তা বা হেলিকপ্টার ব্যবহার করে তাদের কাছে পৌঁছানো খুবই বিপদজনক।

কয়েক মাসের ভয়াবহ এ দাবানল অস্ট্রেলিয়ার চার লাখেরও বেশি হেক্টর জমি বিনষ্ট করেছে।