রোহিঙ্গাদের নাগরিকত্ব বা আলাদা রাষ্ট্র দেওয়া উচিত: মাহাথির

প্রকাশ: ২৮ জুলাই ২০১৯     আপডেট: ২৮ জুলাই ২০১৯      

অনলাইন ডেস্ক

মাহাথির মোহাম্মদ

মিয়ানমার সরকারের রোহিঙ্গাদের নাগরিকত্ব নয়তো আলাদা রাষ্ট্র গঠনের সুযোগ দেওয়া উচিত বলে মতামত জানিয়েছেন মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী ড. মাহাথির মোহাম্মদ।

তুর্কি বার্তা সংস্থা আনাদোলু এজেন্সিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে মাহাথির মোহাম্মদ এমনটাই জানান। 

তিনি বলেন, মালয়েশিয়া কোনো দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ করতে চায় না। তবে মিয়ানমারে এই গণহত্যায় তারা চুপ থাকতে পারেন না। কারণ মালয়েশিয়া সব সময় গণহত্যা, সহিংসতার বিপক্ষে জোরালো অবস্থান নিয়েছে। 

সাক্ষাৎকারে মাহাথির বলেন, মিয়ানমার অনেকগুলো রাজ্যের সমন্বয়ে গঠিত হয়েছে। ব্রিটিশরা চেয়েছিলো সবগুলোকে একসঙ্গে শাসন করতে। সেজন্যই রাজ্যগুলোকে এক করে বার্মা রাষ্ট্র গঠন করা হয়। দেশটিতে নানা গোত্রের মানুষের বসবাস। মিয়ানমার সরকারের এখন রোহিঙ্গাদের নাগরিকত্ব দেওয়া উচিত নয়তো আলাদা রাষ্ট্র গঠনের সুযোগ দেওয়া উচিত।

রোহিঙ্গা ইস্যুতে আন্তর্জাতিক বিচারিক আদালতের (আইসিজে) সিদ্ধান্ত সম্পর্কে মাহাথির বলেন, আইসিজে কেবল তখনই কাজ করতে পারে যদি এই ইস্যুতে উভয়পক্ষই আদালতের অনুসন্ধানগুলি মেনে নিতে সম্মত হয়। তবে আইসিজে যদি একতরফা সিদ্ধান্ত নেয় তবে অন্য পক্ষ এই সিদ্ধান্ত মেনে নেবে না। সুতরাং, আইসিজে'র সিদ্ধান্ত কার্যকর হওয়ার জন্য মিয়ানমার সরকারের চেষ্টা থাকা দরকার।

মিয়ানমার সেনাবাহিনী ২০১৭ সালের আগস্টে রাখাইনের কয়েকটি নিরাপত্তা চৌকিতে হামলার পর পরিকল্পিত ও কাঠামোগত সহিংসতা জোরালো করে। হত্যা-ধর্ষণসহ বিভিন্ন ধারার সহিংসতা ও নিপীড়ন থেকে বাঁচতে বাংলাদেশে পালিয়ে আসে রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর ৭ লাখ ৪০ হাজারেরও বেশি মানুষ। সব মিলিয়ে বাংলাদেশে এখন প্রায় ১১ লাখ রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠী অবস্থান করছে।