১০ দিন আগেই সতর্ক করেছিলেন শ্রীলংকার পুলিশপ্রধান

প্রকাশ: ২১ এপ্রিল ২০১৯      

অনলাইন ডেস্ক

শ্রীলংকার পুলিশপ্রধান পুজুথ জয়সুন্দর— ফাইল ছবি/এএফপি

শ্রীলংকায় রোববার তিনটি গির্জা ও তিনটি হোটেলে একযোগে বোমা হামলা হওয়ার ১০ দিন আগেই এ ধরনের ঘটনার আশঙ্কা দেশজুড়ে সতর্কতা জারি করেছিলেন দেশটির পুলিশ বাহিনীর প্রধান পুজুথ জয়সুন্দর।

রোববার হামলার ঘটনার পর এক প্রতিবেদনে বার্তা সংস্থা এএফপির এ তথ্য জানিয়েছে।

এএফপির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দেশের প্রসিদ্ধ গির্জাগুলোতে আত্মঘাতী হামলা হতে পারে এমন আশঙ্কা সংবলিত একটি বার্তা গত ১১ এপ্রিল শ্রীলংকা গোয়েন্দা সংস্থার কাছে পাঠিয়েছিলেন দেশটির পুলিশপ্রধান।

ওই বার্তায় বলা হয়, 'বিদেশি একটি গোয়েন্দা সংস্থার প্রতিবেদন অনুযায়ী, কলম্বোয় ভারতীয় হাইকমিশনসহ দেশের প্রসিদ্ধ গির্জাগুলোকে লক্ষ্য করে এনটিজে (ন্যাশনাল তাওহীদ জামাত) আত্মঘাতী হামলার পরিকল্পনা করছে।'

গির্জায় ইস্টার সানডের প্রার্থনা চলাকালে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে— কলম্বো টেলিগ্রাফ

ন্যাশনাল তাওহীদ জামাত শ্রীলংকার একটি উগ্রপন্থী ইসলামিক গোষ্ঠী। গত বছর শ্রীলংকার বিভিন্ন স্থানে বুদ্ধ মূর্তি ভাংচুরের ঘটনায় প্রথম এই গোষ্ঠীর কর্মকাণ্ড নজরে আসে।

প্রসঙ্গত, শ্রীলংকায় রোববার সকালে খ্রিষ্টান সম্প্রদায়ের ধর্মীয় অনুষ্ঠান ইস্টার সানডের প্রার্থনা চলাকালে রাজধানী কলম্বোর একটিসহ দেশটির তিনটি গির্জায় একযোগে বোমা বিস্ফোরণ হয়। প্রায় একই সময়ে রাজধানী কলম্বোতে তিনটি পাঁচ তারকা হোটেলেও বোমা বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে।

এসব বিস্ফোরণে ৩৫ জন বিদেশি নাগরিকসহ অন্তত ১৫৬ জন নিহত এবং দুই শতাধিক মানুষ আহত হয়েছে বলে পুলিশ ও হাসপাতাল সূত্রের বরাত দিয়ে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা এএফপি।