পদ হারালেন টার্নবুল, অস্ট্রেলিয়ার নতুন প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন

প্রকাশ: ২৪ আগস্ট ২০১৮     আপডেট: ২৪ আগস্ট ২০১৮      

অনলাইন ডেস্ক

স্কট মরিসন— এএফপি

নিজ দলের রক্ষণশীলদের বিদ্রোহে অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী পদ হারিয়েছেন ম্যালকম টার্নবুল। তার বদলে অর্থমন্ত্রী স্কট মরিসনকে অস্ট্রেলিয়ার নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে বেছে নিয়েছে দেশটির ক্ষমতাসীন জোটের নেতৃত্বে থাকা লিবারেল পার্টি।

শুক্রবার সকালে বার্তা সংস্থা এএফপির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এতে বলা হয়েছে, লিবারেল পার্টি তাদের নতুন নেতা হিসেবে স্কট মরিসনকে বেছে নেওয়ায় গত ১১ বছরের মধ্যে সপ্তম প্রধানমন্ত্রী পেল অস্ট্রেলিয়া। আগের ছয়জনের মধ্যে টার্নবুলসহ চারজনই মেয়াদ শেষ হওয়ার আগে নিজ দলের সিদ্ধান্তে পদ হারিয়েছেন।

লিবারেল পার্টির নেতৃত্ব নিয়ে গত কয়েকদিন ধরেই সংকট চলছিল। এ অবস্থায় শুক্রবার সকালে লিবারেল পার্টির নেতৃত্ব নির্বাচন ভোটাভুটি হয়। তবে এতে অংশই নেননি টার্নবুল। ভোটাভুটিতে সাবেক স্বরাষ্ট্র বিষয়ক মন্ত্রী পিটার ডাটনের বিরুদ্ধে ৪৫-৪০ ভোটে জয়ী হন ম্যালকম টার্নবুলের ঘনিষ্ঠ সহযোগী অর্থমন্ত্রীর দায়িত্বে থাকা স্কট মরিসন।

দলের নেতৃত্ব নির্বাচনে অনুষ্ঠিত ভোটাভুটিতে হেরে যাওয়ার পর সংবাদ সম্মেলন ম্যালকম টার্নবুল— এএফপি

টার্নবুলের আরেক ঘনিষ্ট সহযোগী পররাষ্ট্রমন্ত্রী জুলি বিশপও নেতৃত্বের লড়াইয়ে অংশ নিয়েছিলেন। তবে ভোটাভুটির প্রথম রাউন্ডেই বাদ পড়েন তিনি।

নেতৃত্ব হারানোর পর এক সংবাদ সম্মেলনে দেশবাসীর উদ্দেশ্যে টার্নবুল বলেন, 'এই মহান জাতির নেতা হওয়াটা আমার জন্য অনেক বড় ব্যাপার ছিল। আমি অস্ট্রেলিয়াকে ভালোবাসি। আমি অস্ট্রেলীয়দের ভালোবাসি।'

আসন্ন জাতীয় নির্বাচনের আগে সরকার সম্পর্কে জনমত জরিপে ভালো ফল না আসা এবং সাম্প্রতিক উপ-নির্বাচনে পরাজয় ক্ষমতাসীন লিবারেল পার্টির নেতৃত্বকে উদ্বিগ্ন করে তোলে। এরই মধ্যে গত সপ্তাহে জ্বালানি নীতিমালা ঘিরে টার্নবুলের সঙ্গে দলের রক্ষণশীল অংশের বিবাদ স্পষ্ট হয়ে ওঠে। এরপর দলের সংখ্যাগরিষ্ঠ অংশ নেতৃত্বে পরিবর্তনের দাবি তুললে সরে দাঁড়াতে সম্মত হন টার্নবুল।

বিষয় : অস্ট্রেলিয়া অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী ম্যালকম টার্নবুল স্কট মরিসন