নেপালের বেসরকারি কোম্পানি তারা এয়ারলাইনের বিধ্বস্ত বিমানের ব্ল্যাক বক্স উদ্ধার হয়েছে। দেশটির সিভিল অ্যাভিয়েশন অথোরিটি বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। 

এর আগে রোববার ২২ আরোহী নিয়ে বিমানটি বিধ্বস্ত হয়। পরে সোমবার প্রথমবারের মতো বিমানটি বিধ্বস্ত হওয়ার স্থানটি শনাক্ত হয়। এরপর বিমানে থাকা যাত্রীদের মরদেহ উদ্ধার হতে থাকে। মঙ্গলবার ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি অনলাইন এই খবর দিয়েছে। 

সিভিল অ্যাভিয়েশন অথোরিটি জানিয়েছে, বিমানটি নেপালের পোখরা থেকে জমসমের উদ্দেশে যাত্রা করে। কিন্তু উড্ডয়নের ১৫ মিনিট পর বিমানটির নিয়ন্ত্রণকক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে। পাঁচ মিনিট পরই বিমানটি অবতরণ করার কথা ছিল। বিমানটিতে চার জন ভারতীয়, দুই জার্মান এবং ১৬ জন নেপালি আরোহী ছিলেন।  

নেপালের সিভিল অ্যাভিয়েশন অথোরিটির মুখপাত্র ডেও চন্দ্র লাল কর্না বিবিসিকে বলেছেন, ককপিট ভয়েস রেকর্ডার যা ব্ল্যাক বক্স নামে পরিচিত তা বিমানটি বিধ্বস্ত হওয়ার স্থান থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। আমরা সেটি এখন হেলিকপ্টারে কাঠমান্ডু পাঠানোর প্রস্তুতি নিচ্ছি। 

স্থানীয় উদ্ধারকর্মী ইন্দ্র সিংহ বলেছেন, পর্বত আরোহীদের গাইড এবং নিরাপত্তা কর্মকর্তারা বিমানের ধ্বংসাবশেষ থেকে ব্ল্যাক বক্স কেটে বের করেছেন।