রাত পোহালে ঈদ। ঈদুল ফিতরের ঠিক আগের দিন নতুন খবর দিলেন জনপ্রিয় অভিনেতা মোশাররফ করিম। কলকাতার নির্মাতা ব্রাত্য বসুর নতুন সিনেমায় অভিনয় করতে যাচ্ছেন তিনি।

এর আগে মোশাররফ করিম ব্রাত্য বসুর ‘ডিকশনারি’র মাধ্যমে প্রথমবার কলকাতার ছবিতে অভিনয় করে সাড়া ফেলেছেন। সেই ছবির জয়রথ এখনও চলছে। সম্প্রতি ছবিটি নেপাল আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে পুরস্কৃত হয়েছে।

হিন্দুস্তান টাইমসকে ব্রাত্য বসু জানালেন, নতুন এই ছবির নাম হবে ‘হুব্বা’। এটা একটা রাজনৈতিক ছবি, যাতে অপরাধ আর কৌতুকের মিশ্রণ থাকবে।

হুব্বা নামে ছবিটির বিষয়ে মোশাররফ করিম সমকালকে জানান, নব্বইয়ের দশকের শেষ দিকে আবির্ভূত হুব্বা শ্যামল একজন গ্যাংস্টার। সে ছিল পশ্চিমবঙ্গের হুগলি জেলার অপরাধ জগতের একচ্ছত্র ক্ষমতার অধিকারী। খুন জখম ড্রাগ পাচার ইত্যাদি বহু অপরাধে অপরাধী। অজস্র পুলিশ কেস ছিল তার বিরুদ্ধে। ৭০টা মোবাইল ফোন ব্যবহার করত হুব্বা। এই ডন ২০০৯ সালে লোকসভা নির্বাচনে স্বাধীনভাবে ভোটেও দাঁড়িয়েছিল, যাতে বেজায় বিপাকেও পড়েছিল শাসকদল। পরবর্তী সময়ে মনোনয়ন প্রত্যাহার করে নেয় সে। ২০১১ সালে বেশকিছুদিন নিখোঁজ থাকার পর বৈদ্যবাটির খালে হুব্বা শ্যামলের পচগলা দেহ ভেসে উঠে। ২০১১ সালে হুব্বা শ্যামলের লাশ ভেসে ওঠে বৈদ্যবাটির খালে।

এই ছবিতে অভিনয় করবেন পৌলোমী বসু এবং হুব্বা চরিত্রে জনপ্রিয় অভিনেতা মোশাররফ করিম। এছাড়া থাকবেন নাট্যজগতের আরও কয়েকজন শিল্পী। ব্রাত্য বসুর কথায় ‘এই ছবিতে আমি বিশ্বায়নের যুগে বাংলার রাজনীতির পালটে যাওয়ার পটচিত্রটা তুলে ধরতে চাই’। ক্রাইমের সঙ্গে কমেডিরও মিশেল থাকবে এই ছবিতে জানিয়েছেন পরিচালক।

আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে ডিকশনারির পুরস্কার জয় অনেকটাই আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে দিয়েছে ব্রাত্য বসুর। সেই আত্মবিশ্বাস নিয়েই নতুন ছবির প্রি-প্রোডাকশনের কাজ শুরু করে দিয়েছেন তিনি।

মন্তব্য করুন