‘সমিতির ভালো কাজে ভূমিকা রাখতেই নির্বাচন করছি’

প্রকাশ: ১০ অক্টোবর ২০১৯     আপডেট: ১০ অক্টোবর ২০১৯       প্রিন্ট সংস্করণ     

অনিন্দ্য মামুন

অরুণা বিশ্বাস

অরুণা বিশ্বাস। অভিনেত্রী। এবার শিল্পী সমিতির ২০১৯-২১ মেয়াদে নির্বাচন করছেন তিনি। ক্যারিয়ারের নানা প্রসঙ্গ ও বর্তমান কাজ নিয়ে সমকালের সঙ্গে কথা হয় তার। সাক্ষাৎকার নিয়েছেন- অনিন্দ্য মামুন-

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সদস্য পদে নির্বাচন করছেন। নির্বাচনে এলেন কী মনে করে?

মিশা সওদাগর-জায়েদ খান প্যানেল থেকে কার্যকরী পরিষদে নির্বাচন করছি। চলচ্চিত্র শিল্পীদের উন্নয়নে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে এই সমিতি। এই প্রতিষ্ঠানটি শুরু থেকেই শিল্পীদের উন্নয়নে নানা কাজ করে আসছে। এখন সে কাজের মাত্রা আরও বিস্তৃত হয়েছে। শিল্পীদের জন্য আলাদা ফান্ড হয়েছে, কোরবানির ঈদে কোরবানি হচ্ছে, কোনো সদস্য বিপদে পড়লে তার পাশে দাঁড়াচ্ছে। তাই সমিতির ভালো কাজের সঙ্গে কার্যকরী ভূমিকা রাখতেই নির্বাচনে অংশ নিচ্ছি।

শিল্পী সমিতির নির্বাচন নিয়ে তো অনেক জলঘোলা হচ্ছে...

সেটা কী রকম জলঘোলা? আমার কাছে এই জলঘোলার কোনো খবর নেই। সবাই স্বতঃস্ম্ফূর্তভাবেই নির্বাচনে প্রচারণা চালাচ্ছে। শিল্পীদের নির্বাচন একটা মিলনমেলা- সবাই আসবে, হেসেখেলে পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিয়ে যাবে। এখানে ভেতরে তো কোনো গণ্ডগোল হওয়ার কথা না। হচ্ছেও না।

এখনকার বেশিরভাগ নাটক ও চলচ্চিত্র নায়ক-নায়িকানির্ভর করেই নির্মিত হচ্ছে। বিষয়টি নিয়ে আপনি কী বলবেন?

এটা খুবই দূঃখজনক। এটা কাম্য নয়। এই চর্চা নিয়মিত হলে আমাদের নাটক-সিনেমা তার জৌলুস হারাবে। অন্যদিকে নায়ক-নায়িকারা যথার্থ সম্মানী পেলেও অন্য শিল্পীদের বেলায় অবহেলা করা হয়। অনেক সময় পুরনো নায়ক-নায়িকাদেরই অল্প টাকায় কাজ করে দেওয়ার অনুরোধ করা হয়। এটা খুবই দুঃখজনক। একটা নাটক-সিনেমা কিন্তু কেবল নায়ক-নায়িকার ওপর দাঁড়িয়ে হয় না। এখানে যার যতটুকু গুরুত্ব তাকে ততটাই দেখানো হবে, সম্মানও করতে হবে।

অনেকেই বলেন, বাংলা ছবি এখন দর্শক দেখছেন না। আপনি একমত?

এ কথার সঙ্গে একমত নই। দেখছেন তবে সেটা কম। আমাদের এখানে এখন ভালো ভালো ছবি নির্মাণ হচ্ছে যদিও, সংখ্যা সেটা কম। তাতে বোঝা যায় ভালো ছবির দর্শক আছেন। তবে ছবি ভালো না হলে দর্শককে হলে ফেরানো যাবে না। একটি-দুটি নয়, অনেক বিষয়ের ওপর জোর না দিলে ভালো ছবিও তৈরি করা সম্ভব নয়। অনেক ধরনের সীমাবদ্ধতা তো আছেই, পাশাপাশি চলচ্চিত্রের অধিকাংশ মানুষের মধ্যে এখনও অজ্ঞতা রয়ে গেছে। মনোভাবের পরিবর্তন হয়নি, দুর্নীতিও কমেনি।

অভিনয় আর নির্মাণের ব্যস্ততা কেমন যাচ্ছে?

আপাতত ব্যস্ততা কম। এফডিসিতে নিয়মিত সময় দিচ্ছি। এম রাহিম পরিচালিত 'শান' সিনেমায় শুটিং করলাম। এই ছবিতে আমার মেয়ের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন পূজা চেরী। এ ছাড়া আজাদ আবুল কালামের 'আই লাভ ইউ' সিনে