ঈদে ছবি মুক্তির ফাঁকা আওয়াজ তুলেছে অনেকেই। সব শেষে মুক্তি পাচ্ছে চারটি ছবি। এর মধ্যে রয়েছে ‘ক্যাপ্টেন খান’, ‘মনে রেখো’, ‘জান্নাত’ এবং ‘বেপরোয়া’। যদিও এর  মধে বেপরোয়া ছবিটি মূলত কথা রাখার জন্য মাত্র একটি হলে মুক্তি দিচ্ছে প্রযোজক।

ঈদে মুক্তির অপেক্ষায় থাকা এ ছবিগুলো সর্বশেষ কে কতটি হল পেল?  ছবির প্রযোজনা সংস্থা, নির্মাতা ও শিল্পীদের সঙ্গে আলাপ করে পাওয়া গেল এ প্রশ্নের উত্তর।

১৭৬ হলে 'ক্যাপ্টেন খান'

‘ক্যাপ্টেন খান’ ছবির প্রযোজক সেলিম খান আগেই জানিয়েছেন ২০০ হলের টার্গেট নিয়ে এগোচ্ছে ছবিটি। মঙ্গলবার জানা গেলো ‘ক্যাপ্টেন খান’ মুক্তি পাচ্ছে দেশের ১৭৬ সিনেমা হলে। ছবিটির প্রযোজক সেলিম খান ও পরিচালক ওয়াজেদ আলী সুমন সমকাল অনলাইনকে এ তথ্যই জানালেন। সেই সঙ্গে রাতে আরও কয়েকটি হল বাড়তে পারে বলেও জানালেন তারা। ‘ক্যাপ্টেন খান’ ছবিটিতে শাকিব খান ও বুবলী জুটি হয়ে অভিনয় করেছেন।


২৩ হলে 'জান্নাত' 

জান্নাত’ চিত্রনায়ক সাইমন সাদিক ও মাহিয়া মাহি অভিনীত ছবি। এ ছবি মাধ্যমে ক্যারিয়ারের প্রথম ঈদের মতো বড় উৎসবে সাইমন সাদিকের যাত্রা শুরু হলো। ছবিটি পেয়েছে ২৩ সিনেমা হল।তবে পরিচালক গত সোমবার জানান, ছবিটি ৪০ হল পেয়েছে। কিন্তু আজ খবর নিয়ে জানা যায় ছবিটির হল সংখ্যা মাত্র ২৫।


৭০ হলে 'মনে রেখো'

কলকাতার নায়ক বনি সেনগুপ্ত ও বাংলাদেশের জনপ্রিয় নায়িকা মাহিয়া মাহি জুটির ছবি ‘মনে রেখো’। হার্টবিট কথাচিত্রের প্রযোজনায় ছবিটি পরিচালনা করেছেন ওয়াজেদ আলী সুমন। ছবিটি ৭০ সিনেমা হলে মুক্তি পাচ্ছে বলে জানিয়েছেন প্রযোজক তাপসী ফারুক। 


১টি হলে 'বেপরোয়া' 

সব প্রতিবন্ধকতা কাটিয়ে অবশেষে সেন্সরবোর্ড থেকে ছাড়পত্র পায় জাজ প্রযোজিত রোশান-ববি জুটির‘বেপরোয়া’। ঈদে চলবে মাত্র একটি সিনেমা হলে। ছবির প্রযোজক আবদুজ আজিজ বলেন, ঢাকার বাইরে মফঃস্বলে চলবে বেপরোয়া। হলের নাম মনে নেই। তবে ঈদের সপ্তাহ দুয়েক পর থেকে ‘বেপরোয়া’ সারাদেশে চলবে।’