রাজনীতিতে অভিনেত্রী তাজিন আহমেদ

প্রকাশ: ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৭      

ঈশ্বরগঞ্জ (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি

নতুন রাজনৈতিক দল 'বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী গণতান্ত্রিক আন্দোলনের' (এনডিএম) মতবিনিময় সভায় তাজিন আহমেদ—সমকাল

টেলিভিশন নাটকের মিষ্টি মুখ তাজিন আহমেদ। অভিনয়শৈলীতে দর্শকপ্রিয়তা পেয়েছেন অনেক আগেই। নাটক লেখা, অনুষ্ঠান উপস্থাপনা এবং সাংবাদিকতা করার অভিজ্ঞতা অর্জন করেছেন তিনি। এবার রাজনীতিতে নতুন অধ্যায় শুরু করেছেন জনপ্রিয় এই অভিনেত্রী।
 
ববি হাজ্জাজের নতুন রাজনৈতিক সংগঠন 'বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী গণতান্ত্রিক আন্দোলনে' (এনডিএম) যোগ দিয়েছেন তাজিন আহমেদ। পেয়েছেন দলটির কেন্দ্রীয় কমিটির বিভাগীয় সম্পাদক (সাংস্কৃতিক) পদ। এখন নতুন দলের সদস্য সংগ্রহ অভিযানে নেমেছেন তাজিন।
 
ময়মনসিংহে প্রথম ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলায় এনডিএম-এর কার্যক্রম শুরু হয় শনিবার দুপুরে। এ উপলক্ষে উপজেলার লক্ষ্মীগঞ্জ বাজারে একটি মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন তাজিন আহমেদ। দলটির হয়ে এটিই তার প্রথম কোনো অনুষ্ঠানে যোগ দেয়া।
 
মতবিনিময় শুরুর আগে আলাপচারিতায় তাজিন আহমেদ জানান, পৈত্রিক বাড়ি নোয়াখালী হলেও ছোটবেলায় বাবাকে হারানোয় পাবনায় নানা বাড়িতে বেড়ে ওঠেন। পড়ালেখা শেষে শুরু করেন অভিনয়; করেছেন সাংবাদিকতাও। এখন নাটক লেখা, টেলিভিশনে উপস্থাপনাও করেন তিনি।
 
কেন রাজনীতি শুরু করেছেন—এ প্রশ্নের জবাবে তাজিন আহমেদ বলেন, 'এনডিএম বাংলাদেশি জাতীয়তাবাদ, ধর্মীয় মূল্যবোধ, স্বাধীনতার চেতনা, জবাবদিহিতামূলক গণতন্ত্র—চারটি উদ্দেশ্য বাস্তবায়ন করার লক্ষ্য নিয়ে যাত্রা শুরু করেছে। একটি রাজনৈতিক দল এতো সুন্দর কর্মসূচি নিয়ে এগোতে পারে, এনডিএম তার নিদর্শন। দলটির লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য জানার পর এর সাথে কাজ করার আগ্রহ তৈরি হয়। তাই দলটির সাথে সম্পৃক্ত হয়েছি।
 
এদিকে, মতবিনিময় ও সদস্য সংগ্রহ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে অভিনেত্রী তাজিন বলেন, 'সাধারণ মানুষ ন্যায্য অধিকার থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। ববি হাজ্জাজের নেতৃত্বাধীন এনডিএম মানুষের অধিকার ফিরিয়ে দিতে কাজ করবে। শোষণ-বঞ্চনার হাত থেকে মানুষকে মুক্তি দেবে।'
 
এজন্য সবাইকে এনডিএমের ছায়াতলে এসে একসঙ্গে কাজ করার আহ্বান জানান তাজিন আহমেদ।
 
মতবিনিময় সভায় এনডিএমের কেন্দ্রীয় যুগ্ম সাংগঠনিক সম্পাদক এমএ বাশারের সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় নেতা মুমিনুল আমীন, কেন্দ্রীয় ছাত্র আন্দোলনের সমন্বয়কারী ইসমাইল হোসেন এবং মাসুদ রানা প্রমুখ।