নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ নিয়োগ নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর স্বাক্ষরিত নথি জালিয়াতির মামলায় ট্রাস্টি মো. শাহজাহানের জামিন কেন বাতিল করা হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। আগামী ১০ দিনের মধ্যে বিবাদীদের এ রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কাজী মো. ইজারুল হক আকন্দ সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ সোমবার এই রুল জারি করেন। 

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক এবং দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) পক্ষে ছিলেন আইনজীবী কামরুন্নেসা রত্না।

প্রধানমন্ত্রীর স্বাক্ষরিত নথি জালিয়াতির ঘটনায় নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রাস্টি শাজাহান. তরিকুল, ফাতেমাসহ কয়েক জনের বিরুদ্ধে ২০২০ সালের ৫ মে মামলা করেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের পরিচালক-৭ মোহাম্মদ রফিকুল আলম। 

ওই মামলায় মো. শাহজাহানকে গত বছরের ১৮ অক্টোবর জামিন দেন ঢাকা মহানগর বিশেষ জজ আদালত। পরে ওই জামিনাদেশ বাতিল চেয়ে হাইকোর্টে আবেদন জানায় দুদক।  সোমবার ওই আবেদনের শুনানি নিয়ে রুল জারি করেন হাইকোর্ট।