মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী অ্যাডভোকেট শ ম রেজাউল করিম বলেছেন, সত্যিকারের মানুষ হতে আদর্শ ও নৈতিক শিক্ষার বিকল্প নেই। পুঁথিগত শিক্ষার পাশাপাশি সামাজিক শিক্ষায় শিক্ষিত হতে হবে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উজ্জীবিত হয়ে শিক্ষার্থীদের দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

শুক্রবার পিরোজপুরের নেছারাবাদে শহীদ স্মৃতি কলেজ মিলনায়তনে তাকে দেওয়া সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি। এ সময় পিরোজপুরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় চূড়ান্ত অনুমোদন দেওয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন তিনি।

এ সময় তিনি বলেন, শুধু পুঁথিগত শিক্ষা বা সার্টিফিকেট অর্জনই প্রকৃত শিক্ষা নয়। শিক্ষার্থীদের নৈতিকতা ও মূল্যবোধ সবচেয়ে বেশি ধারণ করতে হবে। শিক্ষার্থীরা যতো আদর্শ ও নৈতিক চরিত্রের অধিকারী হবে তাদের জীবন ততো বিকশিত হবে। তারা যতো বেশি মূল্যবোধ ধারণ করবে তাদের ভবিষ্যৎ ততো উজ্জ্বল হবে।

তিনি আরো বলেন, সমাজের অনেক বিএ, এমএ পাশ করা শিক্ষিত ব্যক্তি মাদকাসক্ত হয়ে পড়ছে, অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড করছে। তারা সমাজের জন্য সম্পদ নয়, বোঝা। এ জন্য শিক্ষার্থীদের আদর্শ শিক্ষায় শিক্ষিত হতে হবে। যাতে ভবিষ্যতে তারা দেশের নেতৃত্ব দিতে পারে।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের আদর্শ চরিত্রের ও আদর্শ মানসিকতাসম্পন্ন মানুষ হওয়ার এবং মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী হওয়ার শিক্ষা প্রদানের জন্য শিক্ষকদের প্রতি এ সময় আহ্বান জানান মন্ত্রী।

মন্ত্রী আরো যোগ করেন, মেয়েরা যত শিক্ষিত হবে দেশ ততো এগিয়ে যাবে, দেশ ততো উন্নত হবে। এদের মধ্য থেকে অনেক প্রতিভার বিকাশ হতে পারে। বর্তমানে সংসদ নেতা শেখ হাসিনা একজন নারী, জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী একজন নারী। দেশের শিক্ষা মন্ত্রী নারী, বিরোধী দলীয় নেতা নারী। শেখ হাসিনা নারীবান্ধব সরকার প্রধান। তিনি নারীর ক্ষমতায়নে অব্যাহতভাবে কাজ করছেন।

শহীদ স্মৃতি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ ও সাবেক সংসদ সদস্য মো. শাহ আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে নেছারাবাদ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মোশারেফ হোসেন, নেছারাবাদ সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার মো. রিয়াজ হোসেন, পিরোজপুর জেলা যুবলীগের সভাপতি আখতারুজ্জামান ফুলু, নেছারাবাদ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল হামিদ, সাধারণ সম্পাদক এস এম ফুয়াদ, শহীদ স্মৃতি কলেজের শিক্ষকবৃন্দ ও পরিচালনা পর্ষদের সদস্যবৃন্দ, স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানবৃন্দ এবং আওয়ামী লীগ ও এর অঙ্গসংগঠনের স্থানীয় নেতৃবৃন্দ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে নেছারাবাদ উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গণে মৎস্য অধিদপ্তর কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন ইলিশসম্পদ উন্নয়ন ও ব্যবস্থাপনা প্রকল্পের আওতায় জেলেদের বিকল্প কর্মসংস্থানের লক্ষ্যে উপকরণ সহায়তা হিসেবে গবাদিপশু বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগ দেন মন্ত্রী।