ফরিদপুরের নগরকান্দায় ভাতিজার ঘুসিতে এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গেছে। আহত অবস্থায় গতকাল সোমবার রাত ৯টার দিকে নগরকান্দা উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নেওয়ার পথে তিনি মারা যান।

নিহত আনোয়ার বিশ্বাস (৭০) উপজেলার ফুলসুতি ইউনিয়নের কাজীকান্দা গ্রামের মৃত সলিমুদ্দিন বিশ্বাসের ছেলে। রাতেই তাঁর লাশ উদ্ধার করে মঙ্গলবার সকালে থানা পুলিশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, জমি-সংক্রান্ত বিরোধের জেরে সোমবার রাতে আনোয়ারের পরিবারের সঙ্গে ভাতিজা আবুল কালাম বিশ্বাসের কথা কাটাকাটি হয়। এ সময় আনোয়ারের বুকে কালাম ঘুসি দিলে তিনি আহত হন। পরে তাঁকে নগরকান্দা উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি করলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

এ দিকে অভিযোগ উঠেছে, রাতেই ইউপি চেয়ারম্যানের মধ্যস্থতায় আনোয়ারের পরিবারকে এক বিঘা জমি দেওয়ার বিনিময়ে কালাম বিষয়টির মীমাংসা করেন।

মীমাংসার পর আনোয়ার ও তার ভাতিজার পরিবার দাবি করে, আনোয়ার স্ট্রোক করে মারা গেছেন। বিষয়টি নিয়ে উভয় পরিবারের কেউ মুখ খুলতেও রাজি হননি। তবে পুলিশের সন্দেহ হলে আনোয়ারের লাশ মর্গে পাঠায়।

ফুলসুতি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আরিফ হোসেন মীমাংসার বিষয়ে বলেন, আনোয়ারের পরিবারের সঙ্গে তাঁর ভাতিজার ঝামেলা হয়েছে, এটা ঠিক। মীমাংসা করলে নিজেরা করতে পারে। মীমাংসার বিষয়ে তিনি কিছু জানেন না। তবে আনোয়ার স্ট্রোক করে মারা গেছেন বলে তাঁরা শুনেছেন।

নগরকান্দা থানার ওসি মিরাজ হোসেন বলেন, প্রথমে তাঁরা জানতে পারেন, আনোয়ারের সঙ্গে তাঁর ভাতিজা কালামের কথা কাটাকাটি হয়েছে। পরে তদন্ত করে দেখা যায়, জমি নিয়ে আনোয়ারের ছেলের সঙ্গে কালামের কথা কাটাকাটি হয়। তখন আনোয়ার স্ট্রোক করেন। আগেও তিনি তিনবার স্ট্রোক করেছেন বলে জানতে পারেন। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন আসার পর তাঁর মৃত্যুর আসল কারণ জানা যাবে।