চট্টগ্রামে ১২ কোটি টাকা ঋণখেলাপি মামলায় পাঁচ মাসের সাজাভুক্ত দুই ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তারের পর কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত। মঙ্গলবার তাদের সীতাকুণ্ড থানা পুলিশ গ্রেপ্তারের পর আদালতে পাঠায়। শুনানি শেষে চট্টগ্রাম অর্থঋণ আদালতের বিচারক মুজাহিদুর রহমান এর আদালত তাদের জেল হাজতে প্রেরণ করেন।

কারাগারে পাঠানো দুই ঋণখেলাপি হলেন-ব্যবসায়ী আবুল হাসেম ভুইয়া ও মো. শাহ আলম। এরা মেসার্স এ জে এন্টারপ্রাইজের মালিক। হাসেম সীতাকুণ্ডের ভাটিয়ারির মৃত আব্দুর জব্বারের ছেলে। মো. শাহ আলম সীতাকুণ্ড উপজেলার ভাটিয়ারির আবুল হোসেনের ছেলে।

আদালতের ব্যাঞ্চ সহকারি মো. রেজাউল করিম জানান, এনআরবি ব্যাংক লিমিটেড শুলশান এভিনিউ ঢাকা শাখার দায়ের করা অর্থঋণ মামলায় (নম্বর ২৯৪/২০২০) যাবতীয় আইনি প্রক্রিয়া শেষে ২০২১ সালের ৩০ জুন ব্যাংকের পক্ষে ডিক্রি দেন আদালত। ১০ কোটি ৩১ লাখ টাকার ডিক্রির অর্থ ৬০ দিনের মধ্যে পরিশোধ না করায় ১২ শতাংশ হারে সুদে ডিক্রি হয়। কিন্তু ঋণখেলাপিরা অর্থ পরিশোধ না করায় ২০২২ সালের ১৬ জুন ১১ কোটি ৭২ লাখ টাকা আদায়ে মামলা দায়ের করে ব্যাংক। সেই মামলায় শুনানি শেষে গত ১১ সেপ্টেম্বর চার ঋণখেলাপিকে পাঁচ মাস করে সাজা দিয়ে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন আদালত। তারপরই সীতাকুণ্ড থানা পুলিশ এ দুই জনকে গ্রেপ্তার করে।