'নারীর ক্ষমতায়নের প্রতিটি বিষয়ই গুরুত্ব সহকারে দেখতে হবে'

প্রকাশ: ০৮ মার্চ ২০২০     আপডেট: ০৮ মার্চ ২০২০   

অনলাইন ডেস্ক

বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও আজ নানা আনুষ্ঠানিকতায় আন্তর্জাতিক নারী দিবস উদযাপিত হচ্ছে। এবারের আন্তর্জাতিক নারী দিবসের প্রতিপাদ্য হলো- সবার জন্য সমতা। নারী দিবস নিয়ে নিজের ভাবনার কথা জানিয়ে সমকাল অনলাইনের সঙ্গে কথা বলেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট অ্যান্ড ভালনারেবিলিটি স্টাডিজ ইনস্টিটিউটের পরিচালক অধ্যাপক মাহবুবা নাসরীন 

এবারের নারী দিবস এমন এক সময়ে পড়েছে যেখানে মুজিব বর্ষ উদযাপনের প্রস্তুতি চলছে। এবারের নারী দিবসের প্রতিপাদ্য সমতা। জাতির পিতা সবসময় সমতার কথা বলতেন। সংবিধানেও সমতার কথা বলা আছে। 

নারী উন্নয়নের ক্ষেত্রে আমাদের অর্জন অনেক। তারপরও এখন অনেক কিছু  বাকী। টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের জন্য নারীর ক্ষমতায়নের প্রতিটি বিষয়কেই গুরুত্ব সহকারে দেখতে হবে। উন্নয়নের প্রতিটি সূচক ধরে কতটা কাজ করতে হবে সে লক্ষ্যমাত্রা এখন থেকেই নির্ধারণ করা দরকার। টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রার ১৭ টি লক্ষ্যের মধ্যে বিশ্লেষণ করে কোনটি নিয়ে আগানো যাবে সেটা ঠিক করতে হবে। তাহলে আমদের স্বপ্নদ্রষ্টা যেমন দেশ গঠনের স্বপ্ন দেখতেন তা পূরণ হবে। তিনি স্বপ্ন দেখতেন সমাজতান্ত্রিক এমন এক দেশের যেখানে কেউ নিপীড়িত হবে না, সবার মধ্যে সমতা থাকবে। 

২০৩০ সাল আসতে এখনও ১০ বছর বাকি। নারী উন্নয়নে যা কিছু অর্জন তা একটা দিবসে সীমাবদ্ধ রাখলে হবে না। যারা আড়ালে কিংবা সরবে থেকে সমতার জন্য কাজ করছেন, টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনকে গুরুত্ব দিয়ে তাদেরকেও সে লক্ষ্যে এগিয়ে যেতে হবে। তাহলেই সমাজে সমতা তৈরি হবে।