সিটি নির্বাচনে বিএনপির অর্জন কম নয়: ইশরাক

প্রকাশ: ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০     আপডেট: ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০   

সমকাল প্রতিবেদক

গুলশানে ইমান্যুয়েল হলে বক্তব্য রাখেন ইশরাক- সমকাল

গুলশানে ইমান্যুয়েল হলে বক্তব্য রাখেন ইশরাক- সমকাল

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) নির্বাচনে বিএনপির মেয়র প্রার্থী ইঞ্জিনিয়ার ইশরাক হোসেন বলেছেন, আমি কথা দিয়েছিলাম, জনগণকে ভোটের অধিকার ফিরিয়ে দেবো। ব্যর্থ হয়েছি। কিন্তু সিটি নির্বাচনে বিএনপির অর্জনও কম নয়। আমরা নগরবাসী ও দেশবাসীকে বোঝাতে সক্ষম হয়েছি যে, আজকে দেশে জনগণের কোনও মৌলিক অধিকার নেই।

বুধবার গুলশান-১ এর ইমান্যুয়েল ব্যাংকুয়েট কনভেনশন সেন্টারে ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশনে নির্বাচন পরবর্তী যৌথ সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ সব কথা বলেন।

নির্বাচনোত্তর সিটি নির্বাচনের অনিয়ম, দখলদারিত্ব, হামলা, হয়রানিসহ নানা চিত্র বিস্তারিতভাবে জাতির সামনে তুলে ধরতে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে বিএনপির দুই মেয়র প্রার্থী ইশরাক হোসেন ও তাবিথ আওয়াল।

সংবাদ সম্মেলনে ইশরাক হোসেন বলেন, ‘সিটি নির্বাচনে নগরবাসীর সঙ্গে অন্যায় করা হয়েছে, তাদের সঙ্গে প্রতারণা করা হয়েছে। নির্বাচনী প্রচারণার শুরু থেকে আমাদের নানাভাবে বাধা দেয়া হচ্ছিল। কিন্তু কোনও বাধায় আমাকে দমাতে পারেনি।’

বাবা সাদেক হোসেন খোকার স্মৃতিচারণ করে তিনি বলেন, ‘আমি ঘুমের মধ্যেও আমার বাবার শেষ সময়ের দুঃখগুলো দেখতে পাই। তারপরও আমি প্রতিদিন সকালে ঘুম থেকে উঠে হাসি মুখে টানা ২১ দিন নির্বাচনী প্রচারণা চালিয়েছি। ৬০০ কিলোমিটার পথ হেঁটেছি। আমরা ধানের শীষের পক্ষে একটি গণজোয়ার সৃষ্টি করতে পেরেছিলাম। এগুলো দেখে ক্ষমতাসীনরা নানা কূটকৌশলের চেষ্টা করেছেন। সকল কিছুতে ব্যর্থ হয়ে নির্বাচনের দিন তারা ভোটকেন্দ্রগুলো সকাল সকাল দখল করেছে।

ইশরাক হোসেন বলেন, দিনশেষে ক্ষমতাসীন দলের প্রতি আমি হতাশ হয়েছি। আবার একটি আশা ছিল, তারা হয়তো জনগণের ভাষা বুঝতে পারবে। ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে একটি অবাধ, নিরপেক্ষ নির্বাচনের ব্যবস্থা করবে। গণতন্ত্র পুনঃপ্রতিষ্ঠা করার জন্য পদক্ষেপ নেবে। কিন্তু তারা আবারও দেশকে অন্ধকারের দিকে ঠেলে দিলো।

খোকাপুত্র বলেন, সবশেষে বলতে চাই, আমাদের অর্জন কম নয়। আমরা নগরবাসী দেশবাসীকে বোঝাতে সক্ষম হয়েছি যে, তাদের মৌলিক অধিকার আজকে আর নেই। আমি আশা করি, দেশবাসী তার অধিকার রক্ষার জন্য আবারও সোচ্চার হবে। আমি সেই দিনটির অপেক্ষায় রইলাম।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, উত্তর সিটিতে বিএনপির মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়াল, দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান, ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু, ভাইস-চেয়ারম্যান মো. শাহজাহান, বরকত উল্লাহ বুলু, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিব প্রমুখ।