পবিত্র হজ উপলক্ষে এ বছর আরাফাত দিবসের খুতবাটি বাংলাসহ মোট ১৪টি ভাষায় অনুবাদ করে সরাসরি সম্প্রচার করা হবে। সৌদি আরব সরকারের পক্ষ থেকে এমনটাই জানানো হয়েছে। এই সম্প্রচারের মাধ্যমে পবিত্র হজের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ এই খুতবা সর্বাধিক শ্রোতার কাছে সংযম ও সহনশীলতার বার্তা পৌঁছে দেবে।

এ বছর খুতবা অনুবাদের তালিকায় থাকা ভাষাগুলো হলো- বাংলা, ইংরেজি, ফরাসি, চীনা, মালয়, উর্দু, ফার্সি, রুশ, তুর্কি, হাউসা, স্প্যানিশ, ভারতীয়, সোয়াহিলি এবং তামিল। খবর আরব নিউজের।

এক সংবাদ সম্মেলনে দেশটির দুই পবিত্র মসজিদ-বিষয়ক জেনারেল প্রেসিডেন্সির সভাপতি শায়খ আবদুর রহমান আল-সুদাইস এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, সৌদি কর্তৃপক্ষ মসজিদে নববী এবং মসজিদুল হারামের পরিষেবার উন্নয়নে সীমাহীন সহায়তা দিচ্ছে। আরাফাতের খুতবার লাইভ অনুবাদ এবার পঞ্চম বছরের মতো সম্প্রচারিত হবে। আরবি ছাড়াও খুতবাটি এ বছর আরও ১৪টি ভাষায় অনুবাদ করে প্রচার করা হবে।

আবদুর রহমান আল-সুদাইস বলেন, এ বছর ১৪টি ভাষায় অনুবাদ করে সরাসরি সম্প্রচারের ফলে সারা বিশ্বের প্রায় ২০০ মিলিয়ন মানুষের কাছে খুতবা পৌঁছাবে।

তিনি আরও বলেন, সৌদি কর্তৃপক্ষ হজযাত্রী ও দর্শনার্থীদের সেবা প্রদানের জন্য আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে বিশ্বকে ইসলামের সংযম ও সহনশীলতার বার্তা পৌঁছে দিতে আগ্রহী। আরাফাত দিবসের খুতবার সরাসরি অনুবাদ বিশ্বের জন্য একটি বিস্তৃত প্রকল্প, বিশেষ করে পবিত্র স্থানগুলোতে দর্শনার্থীদের জন্য, যা বহু ভাষাভাষী মানুষকে তাদের মাতৃভাষায় খুতবা শোনার সুযোগ করে দেয়।

প্রসঙ্গত, করোনা মহামারির কারণে গত দুবছর 'সীমিত আকারে' হজের আনুষ্ঠানিকতা পালন সৌদি আরব। করোনার সংক্রমণ কমে আসায় এবার বিদেশিদেরও হজ পালনের অনুমতি দেওয়া হয়েছে।