সিরাজগঞ্জের এনায়েতপুরের গোপরেখী গ্রামের কলেজ শিক্ষক আব্দুল গফুরের (৫৫) বাড়িতে বোমাসদৃশ বস্তু নিয়ে এলাকায় আতঙ্ক দেখা দিয়েছে। সোমবার দুপুর থেকে বাড়ির প্রধানফটকসহ সড়কে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। এদিকে কালো-হলুদ তারযুক্ত লাল টেপে মোড়ানো বস্তুটি আসলেই বোমা কি না, তা নিশ্চিত হতে ঢাকার বোমা নিষ্ক্রিয়করণ দল ঘটনাস্থলে গেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গোপরেখী গ্রামের মৃত হাজি নূর হোসেনের ছেলে জেলার শাহজাদপুর উপজেলার ঘোড়শাল সাহিত্যিক বরকতুল্লাহ ডিগ্রি কলেজের প্রভাষক আব্দুল গফুরের ফোনে সোমবার ভোর রাতে মোবাইল নম্বর থেকে কল আসে। অপর প্রান্ত থেকে বলা হয়, ‘তোর বাড়ির খাবার ঘরের আলমারির নিচে একটি বোমা রাখা আছে। আমার সঙ্গে দেখা না করলে তোকে উড়িয়ে দেওয়া হবে। পরে তোর সঙ্গে কথা হবে।’

প্রভাষক আব্দুল গফুর বলেন, এরপরই তারা আলমারির নিচে একটি কার্টনে লাল টেপে মোড়ানো তারযুক্ত বোমাসদৃশ বস্তু দেখতে পান। এতে বাড়ির সবাই আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। এরপর তাঁরা পুলিশে খবর দেওয়ার পাশাপাশি থানায় জিডি করেন।

এদিকে এ খবর ছড়িয়ে পড়লে এলাকাবাসীর মধ্যে আতঙ্কের সৃষ্টি হয়।

সিরাজগঞ্জের জ্যেষ্ঠ সহকারী পুলিশ সুপার (বেলকুচি সার্কেল) সিদ্দিক আহম্মেদ সঙ্গীয় ফোর্সসহ দুপুরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এনায়েতপুর থানার ওসিসহ গোয়েন্দা পুলিশও দফায় দফায় ওই এলাকা পরিদর্শন করে।