ডেঙ্গু বিস্তার রোধে পরিচালিত প্রথম দিনের অভিযানে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) ৮টি অঞ্চলে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়েছে। এ দিন ১২৫টি ভবন ও নির্মাণধীন স্থাপনায় অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় ৫টি ভবনে এডিস মশার লার্ভা পাওয়ায় এক লাখ ২৭ হাজার ৫০০ টাকা জরিমানা করা হয়।

বুধবার দিনব্যাপী করপোরেশনের অঞ্চলসমূহের আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তারা এসব অভিযান পরিচালনা করেন। অঞ্চল-২-এর আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা (উপসচিব) সোয়ে মেন জো মুগদা হাসপাতাল সংলগ্ন এলাকায়, অঞ্চল-৩-এর উপসচিব বাবর আলী মীর লালবাগ এলাকায়, অঞ্চল-৪ ও অঞ্চল-১০-এর উপসচিব মো. হায়দর আলী যথাক্রমে কাপ্তান বাজার, ফুলবাড়িয়া সুপার মার্কেট ও সুন্দরবন স্কয়ার মার্কেট এবং শ্যামপুরের বউ বাজার এলাকায়, অঞ্চল-৫-এর উপসচিব মোহাম্মদ সাখাওয়াত হোসেন সরকার পোস্তাগোলা এলাকায়, অঞ্চল-৬-এর উপসচিব শেখ মুর্শিদুল ইসলাম বেপারী পাড়া ও রসুলবাগ এলাকায়, অঞ্চল-৭-এ উপসচিব মেরীনা নাজনীন মান্ডা এলাকায় এবং অঞ্চল-৯-এর উপসচিব খায়রুল ইসলাম কোনাপাড়া পুলিশ ফাঁড়ি এলাকায় অভিযান পরিচালনা করেন।

অভিযান প্রসঙ্গে সোয়ে মেন জো বলেন, অঞ্চল-২-এর মুগদা হাসপাতাল সংলগ্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে। এই অভিযানে ৩০টি বাসাবাড়ি ও নির্মাণাধীন ভবন পরিদর্শন করা হয়েছে। এ সময় ১টি ভবনে এডিস মশার লার্ভা পাওয়ায় এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। গতবছরও ওই বাড়িতে লার্ভা পাওয়া যায়। চলতি বছরের শুরুতেও ওই বাড়ি মালিককে সতর্ক করা হয়েছিল। কিন্তু সেই বাড়িতেই মশার লার্ভা পাওয়া গেল।

সোয়ে মেন জো আরও বলেন, বৃহস্পতিবারও ডেঙ্গুর প্রকোপ নিয়ন্ত্রণে এই অভিযান পরিচালনা করা হবে।