রাজধানীর দক্ষিণখানের আশকোনা এলাকায় শুক্রবার অভিযান চালিয়ে রাজু নামে চাঁদাবাজি মামলার আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। পুলিশ জানায়, রাজুর বিরুদ্ধে বাড়ি নির্মাণকাজে বাধা, পাঁচ লাখ টাকা চাঁদা দাবিসহ দুইজনকে আহত করার অভিযোগে থানায় মামলা রয়েছে।

নুরুল ইসলাম নামে এক ব্যক্তি বুধবার রাতে দক্ষিণখান থানায় মামলাটি করেন। এ মামলায় রাজুসহ পাঁচজন এজাহারভুক্ত আসামি। অন্যরা হলেন- সুজন, মাসুদ, মুকুল ও তাহের। এছাড়া অজ্ঞাতপরিচয়ের আসামি রয়েছেন আট থেকে নয় জন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা দক্ষিণখান থানার পরিদর্শক অপারেশন আফতাব শেখ সমকালকে বলেন, আশকোনায় এয়ারপোর্ট গ্রিন সিটি এলাকায় বাড়ি নির্মাণে ট্রাক দিয়ে মাটি ভরাটের কাজ করেন নুরুল ইসলাম। এ সময় রাজু, সুজন, মাসুদ, মুকুল, তাহেরসহ অজ্ঞাতপরিচয়ের আট থেকে নয়জন ওই কাজে বাধা দেন এবং পাঁচ লাখ টাকা চাঁদা দাবিতে ট্রাকচালক জাহাঙ্গীর ও সহকারী রুবেলকে পিটিয়ে আহত করেন।

পুলিশ জানায়, অপর আসামিদের গ্রেপ্তারে পুলিশের একটি দল মাঠে নেমেছে। এজাহারভুক্ত আসামিরা স্থানীয় রাজনৈতিক আশ্রয়ে পালিয়ে আছেন।

মামলার বাদী নুরুল ইসলাম বলেন, প্রায় ৩০ বছর আগে আশকোনা গ্রিন সিটি এলাকায় তিন কাঠা জমি কেনা হয়। অর্থের অভাবে এতদিন বাড়ি নির্মাণে সেখানে মাটি ভরাট করতে পারিনি। এখন এলাকার চিহ্নিত কিছু চাঁদাবাজের কারণে বাড়ি নির্মাণে বাধা সৃষ্টি হয়েছে।