পৌরসভা নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে আয়োজন করতে নির্বাচন কমিশন (ইসি) ব্যর্থ হয়েছে অভিযোগ তুলে বিএনপির ইউপি ইলেকশন বর্জনের ঘোষণার প্রতিক্রিয়ায় ইসির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, সব দলকে ভোটে রাখতে তারা সহযোগিতা করতে প্রস্তুত।

রোববার পৌরসভা নির্বাচনের পঞ্চম ধাপের ভোটগ্রহণ শেষে নির্বাচন ভবনে এক ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নে এ কথা বলেন ইসি সচিব হুমায়ুন কবীর খোন্দকার। তিনি বলেন, কমিশন সব সময় চায়, প্রতিটি ব্যক্তি, প্রতিটি দল নির্বাচনে অংশ নিক। আমাদের কাছে যে সহযোগিতা চাইবেন, ইসি সে বিষয়ে সহযোগিতা দেবে।

রোববার ভোটগ্রহণের মধ্যেই বিএনপির বেশ কয়েকজন মেয়র প্রার্থী অনিয়মের অভিযোগ তুলে নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দেন। এ প্রসঙ্গে ইসি সচিব বলেন, যদি কেউ নির্বাচন প্রত্যাখ্যান করে, এটি নিতান্তই তার ইচ্ছা। তিনি করতেই পারেন। তিনি যদি আমাদের অভিযোগ করেন, আমরা বিষয়টি তদন্ত করে দেখব।

তবে উৎসবমুখর পরিবেশে নির্বাচন হয়েছে দাবি করে ইসি সচিব বলেন, ২৯টি পৌরসভা এবং চারটি উপজেলায় উপনির্বাচন হয়েছে। রিটার্নিং কর্মকর্তা ও মনিটরিং সেল থেকে প্রতি ঘণ্টায় রিপোর্ট পেয়েছি। তাতে বুঝতে পেরেছি, উৎসবমুখর পরিবেশে নির্বাচন হয়েছে। আমি মনে করি, ভোট ভালো হয়েছে।

সৈয়দপুরে একজনের মৃত্যুর ঘটনা প্রসঙ্গে হুমায়ুন কবীর খোন্দকার বলেন, নিঃসন্দেহে কোনো মৃত্যুই কাঙ্ক্ষিত নয়। এ জন্য সবাই দুঃখিত। তার শরীরে কোনো আঘাতের চিহ্ন ছিল না। এই মৃত্যু কীভাবে হয়েছে, রিপোর্ট পেলে বলতে পারব।

মন্তব্য করুন