রঙবেরঙের গামছায় ঢাকা দীর্ঘ সীমানাপ্রাচীর

প্রকাশ: ২৭ জুলাই ২০২০     আপডেট: ২৭ জুলাই ২০২০   

সাজ্জাদ হোসেন

দূর থেকে দেখলে মনে হয় প্রাচীরটি বিভিন্ন রঙে রাঙানো -সমকাল

দূর থেকে দেখলে মনে হয় প্রাচীরটি বিভিন্ন রঙে রাঙানো -সমকাল

দূর থেকে দেখলে মনে হবে সীমানাপ্রাচীরটি বুঝি শতরকমের রঙে রাঙানো হয়েছে। তবে কাছে গেলেই ভুল ভাঙবে। এগুলো আসলে রঙ নয়, বিভিন্ন রঙের হাজারো গামছা সাজিয়ে রাখা হয়েছে দীর্ঘ সীমানাপ্রাচীর জুড়ে।

রাজধানীর শ্যামলীতে মিরপুর রোডের ধার ঘেঁষে গড়ে ওঠা সরকারি শিশু পল্লীর দীর্ঘ সীমানাপ্রাচীরে চোখ পড়লেই এমন নয়নাভিরাম দৃশ্য চোখে পড়ে। 

 

বিক্রেতাদের দাবি, কুষ্টিয়া, সিরাজগঞ্জ, ব্রাহ্মণবাড়িয়াসহ দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে এসব গামছা নিয়ে আসা হয়। ছোট-বড় সব ধরণের গামছা পাওয়া যায় এখানে। আকার ভেদে দাম ৫০ টাকা থেকে শুরু করে ১৮০ টাকা পর্যন্ত। রাজধানীর অন্য যেকোনো স্থানের চেয়ে অনেক কম মূল্যে ভালো মানের গামছা পাওয়া যায় এখানে। 

তারা জানান, কয়েক বছর ধরে নিয়মিত খুচরা বিক্রেতারা এই সীমানা প্রাচীরে সাজিয়ে গামছা বিক্রি করছেন। বর্তমানে বিক্রেতার সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় আশপাশের আরো কয়েকটি স্থানে গামছা বিক্রি শুরু হয়েছে।


গামছা কিনতে আসা বেসরকারি চাকরিজীবী মো. রাজু জানান, তিনি আদাবরে বসবাস করেন। এই পথ দিয়েই তাকে কর্মক্ষেত্রে যাতায়াত করতে হয়। প্রতিদিন যাওয়া-আসার সময় বিভিন্ন রকমের গামছায় সাজানো সীমানাপ্রচীরটি চোখে পড়ে।  তাই আজ এসেছেন কিনতে।

বিক্রেতা আব্দুল মতিন জানান, তার বাড়ি সিরাজগঞ্জ। তিনি দীর্ঘদিন ধরেই এখানে গামছা বিক্রি করে জীবন চালাচ্ছেন। এভাবে সীমানাপ্রাচীরে গামছা সাজিয়ে রাখলে ক্রেতাদেরও চোখে পড়ে, দেখতেও সুন্দর লাগে।

বিষয় : গামছা